fbpx
কলকাতাহেডলাইন

আনিস কাণ্ডঃ গ্রেফতার হোমগার্ড ও সিভিক ভলেন্টিয়ার

যুগশঙ্খ,ওয়েবডেস্কঃ আনিস কাণ্ডে গ্রেফতার করা হল দুই পুলিশ কর্মীকে। এদের মধ্যে একজন হলেন হোমগার্ড কাশীনাথ বেরা ও সিভিক ভলেন্টিয়ার প্রীতম ভট্টাচার্য। আজ সকালেই এই দুজনকে গ্রেফতার করা হয় বলে জানিয়েছে রাজ্য পুলিশের ডিজি মনোজ মালব্য।

এদিন সাংবাদিকরা প্রশ্ন করেন, আনিসের ঘটনার দিন তার বাড়িতে যারা এসেছিল তারা কি পুলিশ? প্রশ্নের উত্তরে মালব্য জানান, প্রাথমিক তদন্তে জানা যাচ্ছে তারা আমতা থানার পুলিশ। তবে তদন্তের স্বার্থে এখন সব তথ্য দেওয়া সম্ভব হচ্ছে না। ঠিক সময়ে সব জানিয়ে দেওয়া হবে। তবে আগামী ১৫ দিনের মধ্যে সব তথ্য বের হবে।

সাংবাদিক বৈঠক থেকেই রাজ্য পুলিশের ডিজি জানান,  পরিবারের পক্ষ থেকে ফের ময়নাতদন্ত চায় পুলিশ। কিন্তু পুলিশকে দেহ তুলতে বাধা দেওয়া হচ্ছে না। সিটকে কাজ করতে দেওয়া হচ্ছে না।  মোবাইল ফোনও দেওয়া হয়নি।  সিট নিরপেক্ষ তদন্ত করবে।

নিহতের পরিবার সুবিচার পাবে। ম্যাজিস্ট্রেটের উপস্থিতিতে ময়নাতদন্তের আবেদন জানিয়েছে সিট। পুলিশে সঙ্গে সহযোগিতা করতে হবে।

 

সিটের প্রাথমিক তদন্তে প্রমাণ মিলেছে আনিস খুনের ঘটনার সময় আমতা থানার একটি আরটি ভ্যান ঘটনাস্থলে গিয়ে ছিল। দুজন পুলিশ কর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। চারজনকে এখনও জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। আরও দুজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করার পর অবজারভেশনে রাখা হয়েছে।

 

এদিকে এদিন নবান্ন থেকে সাংবাদিক বৈঠক থেকেই কড়া ভাষায় বলেন, সরকার পদক্ষেপ নেওয়ার পরেও কেন এত বিক্ষোভ? সরকার এই সব বরদাস্ত করবে না। পুলিশকে দেহ তুলতে বাধা হয়েছে। দুজন পুলিশকর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তদন্ত চলছে। আইন আইনের পথেই চলবে। দুজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তারা অভিযুক্ত কিনা জানিনা। তবে পুলিশ তদন্ত করছে। আর পুলিশের ওপরে বিশ্বাস রাখতে হবে। আপনাদের বাড়ি চুরি হলে পুলিশকে ডাকবেন না তো তাহলে?

এদিন সাংবাদিক বৈঠক থেকে তোপ দেগে বলেন, নন্দীগ্রামে কি হয়েছিল আমার জানা আছে। আমাকে আন্দোলন শেখানোর দরকার নেই, আমি আন্দোলন করেই বড় হয়েছি’।

Related Articles

Back to top button
Close