fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

দিলীপ ঘোষকে কড়া ভাষায় আক্রমণ করলেন তৃণমূল নেতা অনুব্রত মণ্ডল 

প্রদীপ চট্টোপাধ্যায়, বর্ধমান: রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষকে ফোর টোয়েন্টি দালাল ও জানোয়ার বলে আক্রমণ করলেন বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল । মঙ্গলবার পূর্ব বর্ধমানের আলিগ্রামে অনুষ্ঠিত হয় তৃণমূলের বুথ ভিত্তিক কর্মী সম্মেলন ।জেলার আউশগ্রামের দিগনগর ১ ও ২ নম্বর, বিল্বগ্রাম ও গুসকরা ২ নম্বর অঞ্চল নিয়ে তৃণমূল কংগ্রেসের বুথ ভিত্তিক কর্মী সম্মেলন হয়। সম্মেলনে নিজের দলের বেশ কয়েকজন নেতৃত্বের বিরুদ্ধে অনুব্রত বাবু বিষোদগার করেন।সম্মেলনে উপস্থিত সাংবাদিকরা বিজেপি রাজ্য সভাপতির নাম করতেই অনুব্রত মণ্ডল বেজায় চটেযান । সঙ্গে সঙ্গে অনুব্রত মণ্ডল বলেন ,“দিলীপ ঘোষ একটা ফোর টোয়েন্টি দালাল । এইটুকু বলেই তিনি থামেন নি। পরে দিলীপ ঘোষকে জানোয়ার বলেন কটাক্ষ করে অনুব্রত বলেন ,ও মহিলাদের সন্মান করতে জানে না । মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে নোংরা ভাষায় আক্রমণ করে ।“

 

স্বাস্থ্যসাথী কার্ড নিয়ে কয়েকদিন আগে দিলীপ ঘোষ বিরূপ মন্তব্য করেছিলেন। তিনি বলেছিলেন ওই কার্ড কোন কাজ করবে না।এই বিষয়ে সাংবাদিকরা অনুব্রত মণ্ডলকে প্রশ্ন করলে তিনি মেজাজ হারিয়ে বলেন ও পাগল ছাগল লোক।

এদিনও অনুব্রত মণ্ডল ঘোষণা করেন আগামী বিধান সভা নির্বাচনে তৃণমূল কংগ্রেস ২০০ থেকে ২২০ টা আসনে জয়লাভ করবে।কেন্দ্রীয় কৃষিবিল নিয়েও এদিন অনুব্রত তোপ দাগেন। দলের নেতা কর্মীদের স্মরণ করিয়ে দিয়ে অণুব্রত মণ্ডল বলেন ,রাজ্যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার না থাকলে স্বাস্থ্য সাথী, সবুজসাথী, কন্যাশ্রী কিছুই থাকবে না। তাই বাংলার মানুষের মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মা মাটি মানুষের সরকারকেই প্রয়োজন।

সম্মেলনের মঞ্চ থেকে তিনি দলের কর্মীদের মানুষের সঙ্গে যোগাযোগ বাড়ানোর নির্দেশ বারেবারে দেন ।বলেন ,পাড়ায় পাড়ায় ঘুরে মানুষের কাছে গিয়ে সরকারী প্রকল্পের কথা ও প্রকল্পের সুবিধার কথা বলতে হবে।
পাশাপাশি অঞ্চল সভাপতি ও বুথ সভাপতিদের কাছে কৈফিয়ত করেন কেন অঞ্চলে ভোটের ফল খারাপ হয়েছিল।
সাংসদ মহুয়া মৈত্র প্রসঙ্গে অনুব্রত বলেন, ‘তিনি তো ক্ষমা চেয়ে নিয়েছেন।’

Related Articles

Back to top button
Close