fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

অ্যাসিড ছুঁড়ে মেরে বৃদ্ধা শাশুড়িকে জখম করার অভিযোগে গ্রেফতার বৌমা

প্রদীপ চট্টোপাধ্যায়, বর্ধমান: অ্যাসিড ছুঁড়ে মেরে অবসরপ্রাপ্ত সরকারী কর্মচারী শাশুড়িকে জখম করার অভিযোগ উঠলো সরকারী চাকুরিজীবী বৌমার বিরুদ্ধে । শুক্রবার চাঞ্চল্যকর এই ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব বর্ধমানের খণ্ডঘোষ থানার খুদকুড়ি গ্রামে।
খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে পুত্রবধূ রাণু হাজরাকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে যায় । পরে এই ঘটনা নিয়ে স্বামী অচিন্ত সিংহ নিজে তাঁর স্ত্রী রাণুর বিরুদ্ধে খণ্ডঘোষ থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। অ্যাসিড হামলায় দগ্ধ শাশুড়ি তিলত্তমা সিংহকে উদ্ধার করে ভর্তি করা হয় খণ্ডঘোষ ব্লক স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ।শাশুড়ির প্রতি পুত্রবধূর এমন নিষ্টুর দেখে স্তম্ভিত খুদকুড়ি গ্রামের বাসিন্দারা ।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, তিলত্তমা সিংহ খুদকুড়ি প্রথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নার্সের কাজ করতেন । সম্প্রতি তিনি আবসর গ্রহন করেছেন।তাঁর স্বামী    শয্যাশায়ী রয়েছেন।বর্তমানে খুদকুড়ি স্বাস্থ্য কেন্দ্রের কোয়াটারেরই স্বপরিবার তিনি বসবাস করেন। অভিযোগ এদিন বেলায় সেখানেই তিলত্তমাদেবীর শরীরে অ্যাসিড ছুঁড়ে মারে তাঁর পুত্র বধূ । যা নিয়ে এলাকায় শোরগোল পড়ে গিয়েছে ।

খণ্ডঘোষ থানায় দায়ের করা অভিযোগে তিলত্তমাদেবীর ছেলে অচিন্ত সিংহ জানিয়েছেন,এক বছর দু-মাস আগে তার সঙ্গে রাণু হাজরার বিয়ে হয় ।খণ্ডঘোষের বোঁয়াইচণ্ডী গ্রামে রাণুর বাবার বাড়ি । সে বাঁকুড়ার পাত্রসায়ারের সরকরি অফিসে ক্লার্ক পদে কাজ করে ।পেশায় ব্যবসায়ী অচিন্ত বলেন ,তাঁর সংসার জীবন সুখের হয়নি । বিয়ের পরথেকেই স্ত্রী রাণুর সঙ্গে তাঁর অশান্তি
মনোমালিন্য লেগেই রয়েছে ।একবার বাবার বাড়ি গেলে কখনও দু-মাস আবার কখনও তিন মাস বাদ রাণু শ্বশুর বাড়ি ফেরে ।
অচিন্ত জানান , এই সব নিয়েই এদিন বেলায় রাণুর সঙ্গে তাঁর কথা কাটাকাটি শুরু হয় । তখন তাঁর মা তিলত্তমাদেবী তাঁকে ও রাণুকে চুপ করতে ও সান্ত হতে বলেন ।

 

তা শুনে রাণু তাঁর মাকে বলে , ‘তুমিই যত নষ্টের গোড়া ’। এরপর ঘরে ঢুকে গিয়ে নিজের ব্যাগ খুলে রাণু অ্যাসিড ভর্তি একটি বোতল বেরকরে আনে । সেই অ্যাসিড রাণু তাঁর মায়ের শরীরে ছুঁড়ে মারে । অচিন্ত জানিয়েছেন ,আ্যাসিডে তাঁর মায়ের শরীরের বিভিন্ন জায়গা ঝলসে গিয়েছে । স্ত্রীর বিরুদ্ধে আইন মাফিক ব্যবস্থা গ্রহনের দাবি পুলিশের কাছে জানিয়েছেন ,অ্যাসিড হামলায় আক্রান্তের ছেলে। পুলিশ অভিযোগের তদন্ত শুরু করেছে ।

Related Articles

Back to top button
Close