fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

সন্তানদের সামনেই মা’কে ধর্ষণের চেষ্টা

মিল্টন পাল, মালদা: ঘরের দরজা ভেঙে ঢুকে দুই মেয়ের হাত, পা বেঁধে মাকে ধর্ষণের চেষ্টা ও মারধরের অভিযোগ তিন দুষ্কৃতীর বিরুদ্ধে। দুই নাবালিকা মেয়ের চিৎকারে প্রতিবেশীরা আসতেই দুষ্কৃতীরা এলাকা থেকে পালিয়ে যায়। ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার গভীর রাতে মালদার ইংরেজবাজার থানার রায়পুর গ্রামে। রবিবার সকালে নাবালিকা ওই দুই কন্যা সন্তানকে নিয়ে ইংরেজবাজার থানায় এসে স্থানীয় তিন দুষ্কৃতী পলাশ পান্ডে, টিংকু শীল এবং হীরাময় মণ্ডলের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন নির্যাতিত গৃহবধূ। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, রায়পুর এলাকার বাসিন্দা তার দুই নাবালিকা মেয়েকে নিয়ে বাড়িতে থাকেন। ওই গৃহবধূ পরিচারিকার কাজ করেন। মহিলার স্বামী শ্রমিক ছিলেন । তিনি এক বছর আগেই মারা গিয়েছেন। ওই মহিলাকে বাড়িতে একা থাকার সুযোগ নিয়ে মাঝে মধ্যে উত্ত্যক্ত করতো স্থানীয় ওই তিন অভিযুক্ত। এরপরই ওই গৃহবধূকে মারধর এবং ধর্ষণের চেষ্টার ঘটনাটি ঘটে।পুলিশকে অভিযোগে ওই গৃহবধূ জানান, শনিবার গভীর রাতে দুই নাবালিকা মেয়েকে নিয়ে বাড়িতে ঘুমিয়ে ছিলেন তিনি। সেই সময় তিন অভিযুক্ত ঘরের দরজা ভেঙে তার উপর অত্যাচার চালায়। দুই নাবালিকার হাত-পা বেঁধে তাকে ধর্ষণের চেষ্টা করে । এমনকি ব্যাপক মারধর করা হয়। এই পরিস্থিতিতে তাদের চিৎকার শুনে আশেপাশের লোকজন ছুটে আসেন। তখনই অভিযুক্তরা এলাকা থেকে পালিয়ে যায় ।

আরও পড়ুন: নজর রাখতেন দলাই লামার ওপর, RAW-এর কৌশলে দিল্লি থেকে গ্রেফতার চিনা স্পাই চার্লি পেং,

এরপর রবিবার সকালে পুলিশে অভিযোগ দায়ের করা হয়। এখন অভিযুক্তরা মামলা তুলে নেওয়ার জন্য হুমকিও দিচ্ছে। প্রাণভয় দুই নাবালিকা মেয়েকে নিয়ে গ্রামে ফেরার সাহস পাচ্ছেন না ওই গৃহবধূ বলেও অভিযোগ করেছেন। ইংরেজবাজার থানার পুলিশ সুত্রে জানা গিয়েছে,ঘটনার পর থেকে অভিযুক্তরা গা ঢাকা দিয়েছে।গৃহবধুর অভিযোগের ভিত্তিতে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

Related Articles

Back to top button
Close