fbpx
কলকাতাহেডলাইন

শহরে যাত্রী নিয়ে ছুটছে অটো, চাপ বাড়ছে বেসরকারি বাস মালিকদের

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: বুধবার থেকে কলকাতার রাজপথ-অলিগলি যাত্রী নিয়ে ছুটছে অটো। যদিও যাত্রী সংখ্যা  মাত্র ২জন। যাত্রীও নেহাত মন্দ হচ্ছে না। তবে সব জায়গাতেই ৫ থেকে ১০টাকা ভাড়া বেড়েছে। তারপরেও কিন্তু যাত্রী হচ্ছে। আর সেই সঙ্গে বুধবার থেকে কলকাতা, দূর্গাপুর, আসানসোল ও শিলিগুড়ি থেকে চালু হয়ে গিয়েছে রাজ্য সরকারের সিটি বা শহরতলি, স্বল্পপাল্লা ও দূরপাল্লার বাস পরিষেবা। সব জায়গায় ২০জন যাত্রী নিয়েই রাজ্যজুড়ে চলতে শুরু করে দিয়েছে এই সরকারি বাস পরিষেবা। আর এই দুই ঘটনাই রক্তচাপ বাড়িয়ে দিয়েছে বেসরকারি বাস মালিকদের। কারণ এখনও রাজ্যের রাস্তায় বেসরকারি বাসের চাকা গড়ায়নি।

লকডাউন চতুর্থপর্বে ধীর গতিতে হলেও রাজ্য সরকার গণপরিবহণ স্বাভাবিক করে তুলতে শুরু করেছে। তার জেরেই বেসরকারি বাস পরিষেবা শুরু করার অনুমতিও দিয়েছে রাজ্য সরকার। কিন্তু সঙ্গে এটাও বলে দিয়েছে যে, ২০জনের বেশি যাত্রী বাসে যেন তোলা না হয়। কিন্তু এই বিধি মানতে নারাজ বাসমালিকেরা। তাঁদের দাবি মাত্র ২০জন যাত্রী নিয়ে বাস চালাতে তাঁরা পারবেন না। কারণ তাতে তাঁদের খরচ উঠবে না। তাই তাঁরা চেয়েছিলেন ভাড়া বাড়ানো হোক বা সরকার ভর্তুকি দিক। কিন্তু কীরকম কী ভাড়া বাড়ানো হবে সেই প্রস্তাব বেসরকারি বাস মালিকদের সংগঠনকে জানাতে বলায় তাঁরা ২৫ থেকে ৩৫ টাকা পর্যন্ত নূন্যতম বাস ভাড়া বাড়িয়ে বসে থাকে। কিন্তু রাজ্য সরকারও জানিয়ে দেয় ওই প্রস্তাব মানা সম্ভব নয়। এই টানাপোড়েনের জেরে রাজ্যে এখনও পর্যন্ত রাস্তায় নামতে পারেনি প্রায় ৪৫ হাজার বেসরকারি বাস।

আরও পড়ুন: রবিবার পর্যন্ত বৃষ্টির সঙ্গে চলবে ঝোড়ো হাওয়া…. পূর্বাভাস আবহাওয়া দফতরের

কিন্তু বুধবার কলকাতার বুকে অটো-রাজ ফেরত আসতেই রক্তচাপ বেড়ে গিয়েছে বাস মালিকদের। কারণ দীর্ঘদিন ধরে রাজ্যের বেসরকারি বাস মালিকেরা বলে আসছেন এই অটোর জন্যই তাঁরা যাত্রী হারাচ্ছেন। এখন এই লকডাউনের মধ্যে মাত্র ২জন যাত্রী নিয়েও যদি অটো দৌড়াতে শুরু করে আর নিত্যনতুন রুটে যদি তাঁদের পরিষেবা দেওয়া শুরু করে তাহলে বেসরকারি বাস পরিষেবা চালু হলেও হয়ত খুব একটা সুবিধা করে উঠতে পারবে না।

Related Articles

Back to top button
Close