fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

কম বাজেট ও সামাজিক সচেতনতা কর্মকাণ্ডের উদ্যোগী পুজোকমিটিগুলিকে শারদ সম্মান প্রদান

সুদর্শন বেরা, পশ্চিম মেদিনীপুর: মেদিনীপুর শহরের সমাজসেবী সংগঠন হেল্পিং হ্যান্ড ওয়েলফেয়ার সোসাইটির পক্ষ থেকে মেদিনীপুর শহরের সবচেয়ে কম বাজেটের পুজো গুলি পরিক্রমা করে তার মধ্যে তিনটি পুজো কমিটিকে শারদ সম্মান প্রদান করা হয়। মোট ৩০টি পুজো কমিটিকে কম বাজেটের পুজো করার জন্য চিহ্নিত করা হয়। বৃহস্পতিবার ওই সংগঠনের পক্ষ থেকে বিচারক মন্ডলী পুজো মণ্ডপে গিয়ে সব কিছু বিচার করে দেখেন। বিচারকের সিদ্ধান্তে মেদিনীপুর শহরের গোলকূঁয়াচক সার্বজনীন দুর্গা পুজো কমিটিকে প্রথম, মিরবাজার সার্বজনীন দুর্গাপুজো কমিটিকে দ্বিতীয় ও তৃতীয় পুরস্কার হিসেবে আদি মহাতাবপুর নজরগঞ্জ কালগাং সার্বজনীন পুজো কমিটি শারদ সম্মান প্রদান করা হয়। এছাড়াও বিশেষ পুরস্কার হিসেবে মেদিনীপুর পুলিশ লাইন সার্বজনীন পুজো কমিটি ও বল্লভপুর যুব গোষ্ঠী কে পুরস্কার প্রদান করা হয়। শুক্রবার সন্ধ্যায় ওই সংগঠনের পক্ষ থেকে প্রতিটি পূজা মণ্ডপে গিয়ে তাদের হাতে পুরস্কার হিসেবে শারদ সম্মান ট্রফি তুলে দেওয়া হয়।

শুক্রবার শারদ সম্মান দেওয়ার সময় পুজো মণ্ডপগুলিতে উপস্থিত ছিলেন সমাজসেবী গোপাল সাহা, সংগঠনের সদস্য রাজশ্রী মন্ডল, সুদীপ্তা দে, পারমিতা সাউ সহ আরও অনেকে। সমাজসেবী গোপাল সাহা বলেন, করোনা পরিস্থিতিতে দুর্গাপুজোর অনুষ্ঠান শুরু হয়েছে। তাই যে সমস্ত পুজো কমিটি গুলি কম বাজেটের এবং আদালতের এবং প্রশাসনের নির্দেশ মেনে পুজো করছেন, সেই পুজো কমিটিগুলি কিভাবে করোনা নিয়ে মানুষকে সচেতন করছে তা খতিয়ে দেখেই এই শারদ সম্মান প্রদান করা হয়েছে।

লকডাউনের সময় এই সংগঠন মানুষের পাশে ছিল, করোনা পরিস্থিতিতে ও তারা মানুষের পাশে রয়েছে। করোনা যোদ্ধাদের সংবর্ধনা জানিয়েছে। তাই যারা করোনা নিয়ে মানুষকে সচেতন করছে সেই সমস্ত পুজো কমিটিকে চিহ্নিত করে বিচারকদের নির্দেশে এই পাঁচটি পুজো কমিটিকে পুরস্কার প্রদান করা হয়েছে।

Related Articles

Back to top button
Close