fbpx
কলকাতাহেডলাইন

চিনা অ্যাপ বন্ধ করায় অভিষেকের কটাক্ষ মোদিকে

অভিষেক গঙ্গোপাধ্যায়, কলকাতা: চিনা অ্যাপ ব্যবহার আগে নিজেরাই বন্ধ করুন। তোপ দাগলেন তৃণমূল যুব সভাপতি তথা ডায়মন্ড হারবারের সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। মঙ্গলবার সোশ্যাল মিডিয়ায় এক বার্তায় তিনি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে এভাবেই কটাক্ষ করেন।
তিনি বলেন, ‘দেশের প্রধানমন্ত্রীর বা সরকারের যদি ওই চিনা অ্যাপস নিয়ে এতই মাথা ব্যাথা হয় তাহলে তার ব্যবহার বন্ধ করার পদক্ষেপটা তাঁরা নিজেরাই আগে করুন, তারপর না হয় তা জনগনের ওপরে আরোপ করবেন।’  সম্প্রতি প্রতিবেশী রাষ্ট্র চীন সীমান্তে যেভাবে আগ্রাসন দেখিয়েছিল তাতে গোটা দেশ চীনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদে মুখর হয়ে পড়েছিল। শুধুমাত্র এরাজ্য নয় দেশব্যাপী সেই বিরোধিতা আন্দোলন ছড়িয়ে পড়েছিল চীনা পণ্য বর্জনের ডাক দিয়ে। এরপরে সোমবার দেশের নিরাপত্তা ও অখণ্ডতার পক্ষে বিপজ্জনক আখ্যা দিয়ে টিকটক, জেন্ডার, ভিগো, ইউসি ব্রাউজার্স সহ চিনের বিভিন্ন সংস্থার ৫৯ অ্যাপকে নিষিদ্ধ করেছে কেন্দ্রীয় তথ্য ও প্রযুক্তি মন্ত্রক।
সেই ঘটনার পর যখন দেশজুড়ে সবাই মোদি সরকারের পিঠ চাপড়াচ্ছে ঠিক তখনই পাল্টা কটাক্ষ করলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন তিনি কেন্দ্র সরকারের পদক্ষেপের কোনও বিরোধীতা করেননি। শুধু প্রধানমন্ত্রীর একটি ভিডিও তুলে ধরে সোশাল মিডিয়ায় একটি প্রশ্ন ছুঁড়ে দিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘মোদির ভিডিও প্রচারিত হচ্ছে টিকটকে আর দেশের সরকার ব্যানড করছে সে টিকটকের মতো অ্যাপস কে! এটা কী ভন্ডামি নয়।’ পাশাপাশি অপর এক টুইট বার্তায় অভিষেক  তৃণমূলের ‘যুব শক্তি’ কর্মসূচির  প্রশংসায় মুখর হন। সম্প্রতি রাজ্যের ছাত্র যুবক যুবতীর সরাসরি রাজনীতিতে অংশগ্রহণের জন্য তৃণমূল ‘যুব শক্তি’ কর্মসূচির রূপায়ন করেছিল। এই কর্মসূচির মাধ্যমে প্রতিটি যুব সম্প্রদায়কে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিতে বলেছিলেন অভিষেক। এখনও পর্যন্ত মাত্র ১৯ দিনে প্রায় ১ লক্ষ মানুষ এই কর্মসূচি গ্রহণ করেছেন বলে দাবি তৃণমূল সংসদের। অভিষেক বলেন, ‘বাঙলার যুবশক্তি দ্বারা প্রাপ্ত সমর্থন দেখে আমরা অভিভূত!  আমরা আশা করি এক মাসে ১ লক্ষ ব্যক্তিকে আরোহণ করেছি, তবে আমি আনন্দিত যে এই সঙ্কটের সময়ে ২ লক্ষেরও বেশি  যুবক মানুষকে সাহায্য করতে মাত্র ১৯ দিনে এগিয়ে এসেছেন!’

Related Articles

Back to top button
Close