fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

বিশেষ‌ ট্রেন চালু করা নিয়ে ‌‌‌বাবুল-জীতেন্দ্র তরজা

শুভেন্দু বন্দোপাধ্যায়,আসানসোল: ভিন রাজ্য নিজের সংসদীয় এলাকার আটকে পড়া মানুষদের জন্য স্পেশাল ট্রেনের ব্যবস্থা করতে চলেছেন আসানসোলের সাংসদ তথা কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয় । লকডাউনের জন্য গত প্রায় দুমাস ধরে কেউ পড়তে গিয়ে, কেউ বেড়াতে গিয়ে, কেউ বা কাজ করতে গিয়ে ভিনরাজ্যে আটকে রয়েছেন। ঐসব মানুষদের মধ্যে অনেকেরই অভিযোগ, রাজ্যের নোডাল অফিসারদের টোলফ্রি নম্বরে যোগাযোগ করতে না পেরে, আসানসোল ও দূর্গাপুরের মানুষেরা যোগাযোগ করেছিলেন সাংসদ তথা কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়র সঙ্গে।

বাবুল সুপ্রিয়র ফেসবুক অ্যাকাউন্টে ট্যাগ করে বা টুইট করে অনেকেই নিজেদের দূর্দশার কথা জানিয়েছিলেন। সেই আবেদনে সাড়া দিয়ে বাবুল সুপ্রিয় ফেসবুক পোস্ট করে জানান, তার সংসদীয় এলাকার জন্য স্পেশাল ট্রেন চালানোর ব্যবস্থা তিনিই করতে চলেছেন। বাবুল তার পোস্টে আরো লেখেন, আসানসোল ও দূর্গাপুরের কত মানুষ এখনও বাড়ি ফিরে আসতে চাইছেন তার সংখ্যা নিয়ে একটা ধোঁয়াশা রয়েছে। আমি আপনাদের অনুরোধ করছি, আপনারা আমার আসানসোলের অফিসের নম্বর ০৩৪১-২৩১২২২২ নম্বরে ফোন করে নিজেদের নাম রেজিস্টার করুন । ঐ পোস্টে তিনি উল্লেখ করে দেন, আমার এই প্রচেষ্টা নিয়ে রাজনৈতিক কথাবার্তা লিখলে ব্লক করে দেওয়া হবে । বিরোধীদের কটাক্ষের পরিবর্তে আটকে পড়া আত্মীয়-পরিজনদের নাম নথিকরণের আবেদন করুন। বাবুলের এই পোস্টের পর দেখা যায় বহু মানুষ সরাসরি তার টাইমলাইনে ঘর ফেরার জন্য আবেদন করেছেন। আসানসোল ও দূর্গাপুরের পাশাপাশি রাজ্যের অন্য জেলার মানুষেরাও আটকে পড়ে বাবুলকে ব্যবস্থা নিতে অনুরোধ করেছেন।

আসানসোলের সাংসদের এই পোস্টকে কটাক্ষ করে আসানসোল পুরনিগমের মেয়র তথা পশ্চিম বর্ধমান জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি জিতেন্দ্র তেওয়ারি ফেসবুকে লেখেন, রাজ্য সরকার অনেক আগেই হেল্পলাইন নম্বর প্রকাশ করে ভিনরাজ্যে আটকে থাকা পরিযায়ী শ্রমিক, পর্যটক, পড়ুয়াদের ফিরিয়ে নিয়ে এসেছে। সেক্ষেত্রে আপনার বিলম্বিত বোধধয় হল। এতোসব কিছু ঘটে যাওয়ার আগে আপনাকে পাশে পেলে ভালো লাগতো।

Related Articles

Back to top button
Close