fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

হাথরাস কাণ্ড! প্রতিবাদে আসানসোলের পথে বাল্মিকী সমাজ, পুড়ল যোগীর কুশপুতুল

আসানসোল পোড়ানো হলো মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের কুশপুত্তলিকা

শুভেন্দু বন্দোপাধ্যায়, আসানসোল: উত্তরপ্রদেশের হাথরসের ঘটনার প্রতিবাদে পশ্চিম বর্ধমান জেলার আসানসোল শহর তথা শিল্পাঞ্চল জুড়ে শনিবার বিকেলে একাধিক ধিক্কার মিছিল ও সভা হয়। একটি বিক্ষোভ মিছিলের পরে দাহ করা হয় উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের কুশপুতুলও।

আসানসোলে এদিন পশ্চিম বর্ধমান জেলা বাউড়ি সমাজের ডাকে বাল্মিকী সমাজ ও বিভিন্ন সংগঠনের প্রায় পাঁচ হাজার মহিলা ও পুরুষ রাজপথে নামেন ” জাস্টিস ফর মনীষা বাল্মিকী” লেখা ব্যানার নিয়ে মিছিল করেন ।আসানসোল আদালত চত্বরের ঘড়ি মোড় থেকে শুরু করে বার্ণরোড, পুলিশ লাইন, ভগৎ সিং মোড়, জিটি রোড হয়ে বিএনআরে
এসে সেই মিছিল শেষ হয় ।

মিছিলে যোগী আদিত্যনাথের কুশপুতুল দাহ করা হয়।পাশাপাশি দেখা যায়, মিছিলে থাকা মহিলারা সেই কুশপুতুলের উপরে নিজেদের পায়ের চটি খুলে খুলে মারছেন।সংগঠনের জেলা সম্পাদক রাজবংশী বাউরি বলেন, উত্তরপ্রদেশে একের পর এক দলিত কন্যারা গণধর্ষিতা হচ্ছে ও খুন হচ্ছে। সেইসব ঘটনাকে চাপা দেওয়ার জন্য মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ নেতৃত্বে পুলিশ ও প্রশাসন জোর করে দেহ তুলে নিয়ে গিয়ে মধ্যরাতে কেরোসিন ঢেলে জ্বালাচ্ছে দিচ্ছে। তাও আবার পরিবারকে না জানিয়ে। তারপর সেই পরিবারের সদস্যরা কারোর সঙ্গে কথা বলতে যাতে বাইরে না যেতে পারে, তারজন্য তাদের মোবাইল কেড়ে নেওয়া হয়েছে। দরজা বন্ধ করে পুলিশ মোতায়েন করা হচ্ছে। বাচ্চার দুধ পর্যন্ত নিয়ে যেতে দেওয়া হয়নি। অনাহারে থাকছে তার পরিবার ।

তিনি আরও বলেন, এই অবস্থায় সেখানকার জেলাশাসক পরিবারকে হুমকি দিয়ে বলছেন, বাইরে যদি এসব প্রচার হয় তাহলে কিন্তু তার পরিনাম খারাপ হবে। সরকারের ঘোষিত কোন সাহায্য তারা আর পাবেন না । তিনি আরও বলেন, তাই আমরা যোগী আদিত্যনাথকে বলতে চাই, আসানসোল সহ গোটা বাংলায় সমস্ত ধর্ম ও সম্প্রদায়ের মানুষ আমরা সবাই ঐক্যবদ্ধ ভাবে আছি। এখান থেকে এই আন্দোলনকে ছড়িয়ে দিয়ে আমরা উত্তরপ্রদেশের সরকারকে হুঁশিয়ারি দিতে চাই আগামী দিনে যদি দোষীদের প্রকৃত শান্তি না হয় তাহলে আমরা বুঝিয়ে দেবো যে আমরা কোন পর্যায়ে আন্দোলনকে নিয়ে যেতে পারি ।

এদিকে, এদিনই আসানসোলে আরো দুটি মিছিল হয় একই দাবিতে আসানসোল উত্তর বিধানসভা তৃণমূলের ডাকে। সেই মিছিলের নেতৃত্ব ছিলেন রাজ্যের আইন ও শ্রম মন্ত্রী মলয় ঘটক।
এদিন আসানসোল দক্ষিণ বিধানসভার গ্রামীন ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের ডাকে রানিগঞ্জের পুরাতন এগারায় উত্তরপ্রদেশের ঘটনার প্রতিবাদে ধিক্কার মিছিল হয়। সেই মিছিলে ছিলেন আসানসোল দক্ষিণ বিধানসভার বিধায়ক তথা আসানসোল দূর্গাপুর উন্নয়ন পর্ষদ বা আড্ডার চেয়ারম্যান তাপস বন্দ্যোপাধ্যায়, আসানসোল পুরনিগমের চেয়ারম্যান অমরনাথ চট্টোপাধ্যায়, গ্রামীন ব্লক সভাপতি দেব নারায়ন দাস, অঞ্চল সভাপতি আশিস বাউর সহ তৃণমূল কংগ্রেসের নেতৃবৃন্দ।

Related Articles

Back to top button
Close