fbpx
দেশহেডলাইন

হিংসার আগুনে রণক্ষেত্র বেঙ্গালুরু, মন্দির বাঁচাতে রাতপাহারা দিলেন সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মানুষেরা

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: হিংসার আগুনে উত্তপ্ত বেঙ্গালুরু, কিন্তু তারপরেও সম্প্রীতি টলাতে পারেনি হিংসাকারীরা। ইসলাম যে শান্তি প্রতিষ্ঠার শিক্ষা দেয় তা ফের প্রমাণ করল বেঙ্গালুরুর মুসলিমরা। ধর্মান্ধদের রোষের আগুন থেকে মন্দির বাঁচাতে মানববন্ধন করে রাতপাহারা দিলেন ইসলাম ধর্মাবলম্বীরা। আর সেই ছবি মুহুর্তে ভাইরাল হয়ে যায় নেটপাড়ায়।

নবী মুহাম্মদ কে নিয়ে কুরুচিপূর্ণ পোস্ট করেন কংগ্রেস বিধায়ক শ্রীনিবাস মূর্তির ভাইপো। আর এই নিয়ে মঙ্গলবার উত্তপ্ত হয়ে ওঠে বেঙ্গালুরু। নেটদুনিয়ায় প্রায় সঙ্গে সঙ্গেই ওঠে ঝড়। এরপর রাতে বিধায়কের বাড়ির সামনে উত্তেজিত জনতা ভিড় জমায়। বাড়ি লক্ষ্য করে ইট, পাথর, কাচের বোতল ছুঁড়তে শুরু করে। ২-৩টি গাড়িতেও আগুন লাগিয়ে দেওয়া হয়। এরপর ডিজে হাল্লি থানায় ভাঙচুর চালায় হামলাকারীরা। পুলিশের সঙ্গে উত্তেজিত জনতার খণ্ডযুদ্ধ বেঁধে যায়। ক্রমেই রণক্ষেত্রের চেহারা নেয়। পরিস্থিতি সামাল দিতে বাধ্য হয়ে গুলি চালায় পুলিশ। তাতে ৩ জনের মৃত্যু হয়। আরও কয়েকজন আহত হন। প্রায় ৬০ জন পুলিশকর্মীও জখম হয়েছেন।

এখনও পর্যন্ত গ্ৰেফতার শতাধিক। শহরজুড়ে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। এহেন পরিস্থিতিতে বুধবার একটি ভিডিও পোস্ট করেছে সংবাদ সংস্থা এএনআই। সেখানে দেখা যাচ্ছে, বেঙ্গালুরুর ডিজে হাল্লি থানার অন্তর্গত একটি মন্দির বাঁচাতে জোট বাঁধছেন জনা চল্লিশেক যুবক। উন্মত্ত জনতা যাতে মন্দির চত্বরে না পৌঁছতে পারে তা নিশ্চিত করতে হাতে হাত রেখে বিরাট মানববন্ধন গড়তেও দেখা যায় তাঁদের।

Related Articles

Back to top button
Close