fbpx
আন্তর্জাতিকবাংলাদেশহেডলাইন

শিশু ধর্ষণ ও হত্যা, বাংলাদেশে ১৪ জনের ফাঁসি, ৬ জনের আমৃত্যু ও যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

যুগশঙ্খ প্রতিবেদন, ঢাকা: শিশু ধর্ষণ, অপহরণ ও হত্যার তিন মামলায় ১৪ জনের ফাঁসি এবং ৬ জনের আমৃত্যু ও যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে বাংলাদেশে আদালত।

সোমবার প্রতিবেশি দেশের চট্টগ্রাম, টাঙ্গাইল ও খাগড়াছড়ির আদালতে এই রায় ঘোষণা করা হয়।এর মধ্যে নয় বছর বয়সী শিশু ফাতেমা আক্তার মীমকে ধর্ষণের পর হত্যা ঘটনায় ৮ জনকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে চট্টগ্রাম নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৪ এর বিচারক মো. জামিউল হায়দার। রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী এম এ নাসের এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, আসামিদের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় মীম হত্যা মামলায় আদালত ৮ আসামিকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন। একই রায়ে আদালত তাদের প্রত্যেককে এক লাখ টাকা করে অর্থদণ্ড দিয়েছেন।

ঢাকার পাশ্ববর্তী জেলা টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে দুই শিশু অপহরণের পর হত্যার ঘটনায় তিন জনের মৃত্যুদণ্ড, তিন জনের আমৃত্যু কারাদণ্ড এবং তিন জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের রায় দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে প্রত্যেককে এক লাখ টাকা করে আর্থিক জরিমানা করা হয়েছে।

সোমবার টাঙ্গাইলের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ দ্বিতীয় আদালতের বিচারক সাউদ হাসান এ রায় ঘোষণা করেন।

আদালতের অতিরিক্ত সরকারি কৌঁসুলি (এপিপি) খোরশেদ আলম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।অন্যদিকে পার্বত্য জেলা খাগড়াছড়িতে কিশোরীকে ধর্ষণের পর হত্যার দায়ে তিন যুবককে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে আদালত।

সোমবার দুপুরে খাগড়াছড়ি নারী ও শিশু দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মহাং আবু তাহের এ রায়ে দেন বলে জানিয়েছেন পাবলিক প্রসিকিউটর বিধান কানুনগো আসামিদের প্রত্যেককে এক লাখ টাকা করে অর্থদণ্ড করা হয়েছে।

দণ্ড প্রাপ্তরা হলেন, রুমেন্দ্র ত্রিপুরা ওরফে রুমেন, ত্রিরন ত্রিপুরা ও কম্বল ত্রিপুরা। তারা সবাই খাগড়াছড়ি সদরের ভাইবোনছড়া ইউনিয়নের বেজাচন্দ্র পাড়া গ্রামের বাসিন্দা। এর মধ্যে কম্বল পলাতক রয়েছেন।

নিহত কিশোরী ধনিতা ত্রিপুরা (১৭) ভাইবোন ছড়া ইউনিয়নের বড় পাড়া গ্রামের মন মোহন ত্রিপুরা ও স্বরলেখা ত্রিপুরার মেয়ে।

Related Articles

Back to top button
Close