fbpx
কলকাতাপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

লোকাল ট্রেন পরিষেবা থেকে বঞ্চিত বাঁকুড়া, জারি রাজনৈতিক চাপানউতোর

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: দীর্ঘ ৭ মাস পর গতবুধবার থেকে শুরু হয়েছে লোকাল ট্রেন পরিষেবা। কিন্তু বঞ্চিত রয়ে গিয়েছেন রাজ্যের পশ্চিমাঞ্চলের মানুষ।রাজ্যের পশ্চিমাঞ্চলের জেলাগুলির রেল যোগাযোগের ক্ষেত্রে অন্যতম ব্যস্ততম স্টেশন বাঁকুড়া। দৈনিক অসংখ্য মানুষ বাঁকুড়া স্টেশনের উপর দিয়ে যাতায়াত করেন। গত মার্চ মাস থেকে বাঁকুড়া স্টেশনেও বন্ধ হয়ে রয়েছে ট্রেন চলাচল। বুধবার থেকে লোকাল পরিষেবা শুরু হলেও সেই তালিকায় স্থান পায়নি বাঁকুড়ার উপর দিয়ে যাতায়াতকারী কোনও লোকাল বা এক্সপ্রেস ট্রেন। আর তা নিয়েই শুরু হয়েছে রাজনৈতিক চাপানউতোর। বিষ্ণুপুরের সাংসদ সৌমিত্র খাঁ শুক্রবার বাঁকুড়া, বিষ্ণুপুরে লোকাল পরিষেবা চালু করার অনুরোধ জানিয়ে রাজ্যের মুখ্যসচিবকে চিঠি দিয়েছেন। একইসঙ্গে দক্ষিণ পূর্ব রেলের জিএমকেও চিঠি দিয়েছেন।
প্রসঙ্গত গত লোকসভা নির্বাচনে বাঁকুড়া ও বিষ্ণুপুর লোকসভা কেন্দ্রে বিজয়ী হয়েছেন বিজেপির ডা. সুভাষ সরকার ও বিষ্ণুপুরের সৌমিত্র খাঁ। গেরুয়া মহলের ধারণা সেই কারণেই এই শাখায় ট্রেন চালানো হচ্ছে না। কারণ রাজ্য সরকারের অনুমতির ভিত্তিতেই ট্রেন চালাচ্ছে রেল। সুতরাং এই শাখায় ট্রেন চালানোর বিষয়ে রাজ্য সরকারের সদিচ্ছার অভাব রয়েছে বলে মনে করছে বিজেপি। অন্যদিকে তৃণমূল কংগ্রেসের বক্তব্য, জনপ্রতিনিধিরা উদ্যোগী না হওয়ায় এই শাখায় ট্রেন চলছে না।
বাঁকুড়ার বিজেপি সাংসদ সুভাষ সরকার জানিয়েছেন ইতিমধ্যেই পুরুলিয়া- আদ্রা- বাঁকুড়া- হাওড়া, আদ্রা- আসানসোল, আদ্রা- বরাভূম ও বাঁকুড়া- মশাগ্রাম রুটে অবিলম্বে লোকাল ও এক্সপ্রেস মিলিয়ে একাধিক ট্রেন চালানোর জন্য ইতিমধ্যেই রাজ্যের স্বরাষ্ট্র সচিব ও দক্ষিন-পূর্ব রেলের জেনারেল ম্যানেজারকে চিঠি দিয়ে অনুরোধ জানানো হয়েছে। এলাকার মানুষও চান দ্রুত রাজনৈতিক চাপানউতোর মিটিয়ে দ্রুত এই রুটগুলিতে ট্রেন চালিয়ে স্বাভাবিক করা হোক যাত্রী পরিষেবা। এদিন ট্রেন চালানোর জন্য চিঠি দিলেন সৌমিত্র খাঁ। শেষ পর্যন্ত কী হবে তার ভবিষ্যৎ বলবে।

Related Articles

Back to top button
Close