fbpx
খেলাফুটবলহেডলাইন

৪৬’র স্যাভিয়া দুর্ঘটনার পুনরাবৃত্তি! বায়ার্নের কাছে ধাক্কা খেল বার্সা, চাকরি নিয়ে প্রশ্ন উঠল সেতিয়েনের

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্কঃ চ্যাম্পিয়ন্স লিগের কোয়ার্টার ফাইনালে মুলারদের বায়ার্ন মিউনিখ গুণে গুণে ৮ গোল দিল মেসির বার্সিলোনাকে। খেলার ফল ৮–২।  এর আগে ১৯৪৬ সালে কোপা দেল রে–র শেষ ষোলোয় সেভিয়ার কাছে ০–৮ ব্যবধানে হেরেছিল বার্সিলোনা।

যখনই আক্রমণে উঠেছে, স্প্যানিশ ক্লাবের রক্ষণে উঠেছে ত্রাহি ত্রাহি অবস্থা।
মুলার, কুটিনহোদের দু’‌তিনটে টাচেই বার্সা রক্ষণে পৌঁছে যাচ্ছিলেন মুলাররা। মাত্র ৪ মিনিটে মুলারের গোলে এগিয়ে যায় বায়ার্ন। যদিও তিন মিনিট পর ডেভিড আলাবার আত্মঘাতী গোলে সমতায় ফেরে বার্সা। তার কিছুক্ষণ পরই সুয়ারেজের একটি সহজ মিস ও মেসির শট পোস্টে লাগা। বাকিটা পুরো বায়ার্নের দখলে। আক্রমণে শেষ করে দেওয়া মেসিদের। ইভান পেরিসিচ গোল করেন ২১ মিনিটে। ২৭ মিনিটে ব্যবধান বাড়াল সের্জে গ্যানারবি। দলের চতুর্থ ও নিজের দ্বিতীয় গোলটি ৩১ মিনিটে করেন মুলার। প্রথমার্ধে বায়ার্ন এগিয়েছিল ৪–১ ব্যবধানে।

দ্বিতীয়ার্ধে ছবিটা কিন্তু বদলায়নি। সেই আক্রমণে কোণঠাসা করে দেওয়া। এরই মাঝে ৫৭ মিনিটে সুয়ারেজ গোল করে ব্যবধান কমিয়েছিলেন। কিন্তু জোসুয়া কিমিচের গোলে ৬৩ মিনিটে বায়ার্ন ফের এগিয়ে যায়। ৮২ মিনিটে রবার্ট লেওয়ানডস্কি হেডে গোল করে যান। সুপার সাব হিসেবে নেমে জোড়া গোল করে যান ব্রাজিলিয়ান ফিলিপ কুটিনহো। লেওয়ানডস্কির গোলের ক্ষেত্রেও অবদান এই কুটিনহোর।

৮ গোল খাওয়ার পর বার্সা কোচ সেতিয়েনের চাকরি নিয়ে প্রশ্ন উঠে গেছে। কোচের উপর ক্ষুব্ধ বার্সা কর্তৃপক্ষ। গত ৭৫ বছরে এত বড় ব্যবধানে হারেনি বার্সা। এর আগে ১৯৪৬ সালে কোপা দেল রে–র শেষ ষোলোয় সেভিয়ার কাছে ০–৮ ব্যবধানে হেরেছিল বার্সিলোনা।

Related Articles

Back to top button
Close