fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

মণীশ শুক্লা হত্যাকান্ডে ধৃতদের ১৪ দিনের সিআইডি হেফাজতের নির্দেশ দিল ব্যারাকপুর আদালত

শ্যাম বিশ্বাস, উত্তর ২৪ পরগনা: বিজেপি নেতা মণীশ শুক্লা হত্যাকান্ডে ধৃত ২ জনের ১৪ দিনের সিআইডি হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছে ব্যারাকপুর আদালত। সোমবার রাতেই ব্যবসায়ী মহম্মদ খুররম এবং শার্প শ্যুটার গুলাব শেখকে আটক করা হয়েছিল। রাতভর জেরার পর মঙ্গলবার সকালে এই দুজনকে গ্রেফতার করা হয়। তারপর মঙ্গলবার দুপুরে এদের ব্যারাকপুর মহকুমা আদালতে পেশ করা হয়েছিল। সেখানেই এই দুজনকে ১৪ দিনের সিআইডি হেফাজতের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

গত রবিবার রাত ৮ টা নাগাদ টিটাগড়ের বিজেপি নেতা মণীশ শুক্লাকে পয়েন্ট ব্ল্যাঙ্ক রেঞ্জ থেকে গুলি করে ঝাঁঝরা করে দেয় আততায়ীরা। প্রাথমিক ভাবে জানা যায়, মণীশের শরীরে অন্তত ১৪টি বুলেট লেগেছে। এরপর ময়নাতদন্তের রিপোর্টে জানা গিয়েছে, মণীশের মুখে এবং বুকে ৭টি গুলি লেগেছে। রিপোর্টে বলা হয়েছে, ৭ এমএম পিস্তল থেকে গুলি করা হয়েছে। তদন্তকারীদের সন্দেহ ৭ এমএম পিস্তল থেকে গুলি করা হয়েছে।

[আরও পড়ুন- বাংলায় একের পর এক র্ধষণ হচ্ছে, প্রতিবাদে মমতার কুশপুত্তলিকা দাহ করে বিক্ষোভ নিখিল বঙ্গ মহিলা সংঘের]

এই ঘটনায় সোমবার দুপুরেই তদন্তভার দেওয়া হয় সিআইডির হাতে। সোমবার মহম্মদ কুররম এবং গুলাব শেখকে গ্রেফতার করেছিল সিআইডি। এরপর জেরা করে তদন্তকারীদের সন্দেহ হয় যে ব্যক্তিগত আক্রোশের থেকেই হয়তো মণীশকে খুন করিয়েছে খুররম। প্রসঙ্গত, টিটাগড়, ভাটপাড়া, জগদ্দল এলাকার অনেকেই জানেন মণীশের সঙ্গে খুররমের সংঘাত দীর্ঘদিনের। খুররমের বাবা ছিলেন স্থানীয় সিপিএম নেতা। তাঁর খুন হওয়ার ঘটনায় মণীশের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছিল। তারপর থেকেই এদের দুজনের কার্যত সাপে-নেউলে সম্পর্ক।

অন্যদিকে ছেলের খুনের ঘটনায় টিটাগড় থানায় এফআইআর দায়ের করেন মণীশের বাবা চন্দ্রমণি শুক্লা। এফআইআরে মোট ৭ জনের নামে অভিযোগ করেছেন মণীশের বাবা। তার মধ্যে দুজন টিটাগড় ও ব্যারাকপুর পুরসভার বিদায়ী চেয়ারম্যান তথা তৃণমূল নেতা। টিটাগড় পুরসভার প্রাক্তন পুরপ্রধান প্রশান্ত চৌধুরী, ব্যারাকপুর পুরসভার বিদায়ী পুরপ্রধান উত্তম দাসের নাম রয়েছে এফআইআরে।

মণীশের বাবা এফআইআরে লিখেছেন প্রশান্ত চৌধুরী এবং উত্তম দাসই তাঁর ছেলেকে খুন করার মাস্টারমাইন্ড। যদিও দুই বিদায়ী চেয়ারম্যানই নিজেদের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। তাঁদের বক্তব্য, ইচ্ছাকৃত ভাবে এই খুনের ঘটনাকে রাজনৈতিক মোড়ক দেওয়া হচ্ছে।এছাড়াও ভোলা প্রসাদ, বাঁটুল, রুমি পালের মতো কুখ্যাত সমাজবিরোধীদের নাম রয়েছে এফআইআরে। গ্রেফতার হওয়া ব্যবসায়ী মহম্মদ খুররমের নামও মণীশ শুক্লার বাবার দায়ের করা এফআইআরে রয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

 

Related Articles

Back to top button
Close