fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

বিমান সেবিকাকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে সহবাস, গর্ভপাত করানোর অভিযোগে গ্রেফতার যুবক

শ‍্যাম বিশ্বাস, উত্তর ২৪ পরগনা: প্রথমে বিমান সেবিকাকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে সহবাস। এরপর গর্ভপাত করানোর অভিযোগে গ্রেফতার হল এক যুবক। বসিরহাট মহাকুমার হাড়োয়া থানার সালিপুর গ্রামের ঘটনা। বছর ২৯ এর যুবক গিয়াস উদ্দিন মোল্লার বাড়ি দক্ষিণ ২৪ পরগনা কাশিপুর থানার শ্যামনগর এলাকায়। এই যুবকের সঙ্গে পরিচয় হয় বছর চব্বিশের তরুণী। এই তরুণীর বাড়ি হাড়োয়া থানার সালিপুর এলাকায়। কলকাতা বিমানবন্দরে কর্মরত এই বিমান সেবিকা। আসা-যাওয়ার সুবাদে গিয়াস উদ্দিনের সঙ্গে পরিচয় হয় ওই বিমান সেবিকার। পেশায় ওই যুবক ইমারতের ব্যবসা করেন।

কলকাতা যাওয়ার সুবাদে ওই তরুণীর সঙ্গে পরিচয় হয় গিয়াস উদ্দিনের প্রথমে প্রেম-প্রণয় এরপর বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে সহবাস করে। দিনের পর দিন ধর্ষণ করার পর অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েন ওই বিমান সেবিকা।

[আরও পড়ুন- সুন্দরবনে নিজের বিয়ে নিজেই রুখল নাবালিকা ছাত্রী]

এরপর জোর করে তাকে গর্ভপাত করানো হয় বলে অভিযোগ। এই গর্ভপাতের পর ওই যুবক তরুণীকে বিয়ে করতে অস্বীকার করে। তারপর ওই বিমান সেবিকা ওই যুবকের বিরুদ্ধে হাড়োয়া থানায় বিয়ের প্রতিশ্রুতিতে সহবাস ও ধর্ষণের ভয় দেখিয়ে গর্ভপাত করানোর অভিযোগ করে রবিবার রাতে। ওই যুবতীর অভিযোগ পেয়ে কাশিপুর শ্যামনগর গ্রাম থেকে অভিযুক্ত যুবক গিয়াস উদ্দিন মোল্লাকে গ্রেফতার করে হাড়োয়া থানার পুলিশ। ধৃত যুবককে সোমবার বসিরহাট মহকুমা আদালতে তোলা হবে। নির্যাতিতা তরুণী ওই যুবকের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন। ওই বিমানসেবিকাকে সোমবার বসিরহাট জেলা হাসপাতালে মেডিকেল পরীক্ষা করানো হয়। পাশাপাশি বসিরহাট মহকুমা আদালতে ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে জবানবন্দি দেন নির্যাতিতা। বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে সহবাস, ধর্ষণ, গর্ভপাতের অভিযোগ অস্বীকার করেছে ওই যুবক।

 

Related Articles

Back to top button
Close