fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

করোনা সংক্রমণের আশঙ্কায় বন্ধ বসিরহাট মহকুমা আদালতের কাজ

পরিমল দে, বসিরহাট: করোনার পরিস্থিতিতে নির্দিষ্ট দিনে বসিরহাট মহকুমা আদালতের বিচার প্রক্রিয়া চালানো হলেও সংক্রমণের আশঙ্কা বন্ধ করে দেওয়া হলো আদালতের কাজকর্ম।

লকডাউন প্রক্রিয়া শুরু হওয়ার পর থেকে এক প্রকার বন্ধ রাখা হয়েছিল বসিরহাট মহকুমা আদালতের কাজকর্ম। ধীরে ধীরে নির্দিষ্ট দিন ধার্য করে বিচার-প্রক্রিয়ার কাজ শুরু হয়েছিল বসিরহাট মহকুমা আদালতে। কিন্তু সংক্রমণের আশঙ্কা বন্ধ করে দেওয়া হল কোর্টের বিচার প্রক্রিয়া। জানা যায়, আগস্ট মাসের ৬ ও ৭ তারিখে দিন নির্ধারিত ছিল বিচার প্রক্রিয়ার জন্য। কিন্তু এরই মধ্যে বসিরহাট মহকুমা আদালতে একজন ডি গ্রুপ কর্মীর শরীরে করোনা ধরা পড়ায় বিষয়টি জানানো হয়েছিল জেলা আদালতে। বসিরহাট কোর্টের এক আইনজীবী কালীচরণ মন্ডল জানান গত ৪ আগস্ট কোর্টের কাজকর্ম করেন ওই গ্রুপ ডি কর্মী। এরপর ৫ আগস্ট লকডাউন এর দিন বসিরহাট হাসপাতালে করোনা পরীক্ষা করায় সেখানে কোভিড পজেটিভ ধরা পড়ে ওই কর্মীর শরীরে।

এদিকে আগের দিনই আক্রান্ত ওই কর্মী আদালতের ঘর ও টেবিল সাফাই এর কাজ করেন। যার ফলে আক্রান্ত ওই কর্মীর থেকে বাকিরা সংক্রমিত হওয়ার আশঙ্কায় জেলা ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে রিপোর্ট পাঠানো হয়েছিল। তারই পরিপ্রেক্ষিতে ৬ ও ৭ আগস্ট আদালতের কাজ বন্ধ রাখা হয় বলে জানান, বসিরহাট মহকুমা আদালতের সিভিল বার অ্যাসোসিয়েশনের বিদায়ী কমিটির সম্পাদক অর্পণ হালদার।

Related Articles

Back to top button
Close