fbpx
অফবিটবিজ্ঞান-প্রযুক্তি

চাঁদে বাথরুম বানালেই নাসা থেকে মিলবে নগদ ১৫ লক্ষ, ব্যবহার হবে ২০২৪ সালের অভিযানে

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্কঃ মহাকাশচারীদের জন্য এবার সুখবর! চাদেই ব্যবহারযোগ্য বাথরুম নির্মানের উদ্যেগ নিল নাসা। প্রকৃতির  ডাকে সাড়া দেওয়া প্রত্যেকেরই শারীরবৃত্তীয় পরীক্ষা। মহাকাশযাত্রীরাও সেই তালিকা থেকে বাদ যান না। কিন্তু তাঁদের ক্ষেত্রে সমস্যা অন্য। কারণ মহাকাশে কাজ করে না পৃথিবীর মাধ্যাকর্ষণ শক্তি। অন্যদিকে, আবার চাঁদে গেলে মাধ্যাকর্ষণ শক্তি কমে দাঁড়ায় পৃথিবীর ৬ ভাগের এক ভাগ। অর্থাৎ পৃথিবীতে কারোর ওজন ৬০ কেজি হলে, চাঁদে হবে মাত্র ১০ কেজি। একেক জায়গায় এক একরকম। আর এই কারণে বিপাকে পড়তে হয় মহাকাশচারীদেরই। এবার তাঁদের কথা ভেবেই নতুন চ্যালেঞ্জ নিয়ে এল নাসা। তৈরি করতে হবে চাঁদে ব্যবহারযোগ্য বাথরুম। ঘনত্ব হতে হবে ৪.‌২ কিউবিক ফিট। শব্দ ৬০ ডেসিবেলের উপরে যাবে না। অর্থাৎ পৃথিবীতে একটি বাথরুমের ভ্যান্টিলেশন ফ্যানের আয়তন হতে হবে সেটিকে। আর এরকম বাথরুম যিনি তৈরি করে প্রথম স্থান অর্জন করবেন, নগদ ১৫ লক্ষ টাকা পুরস্কার পাবেন। যিনি দ্বিতীয় স্থানে থাকবেন তিনি পাবেন নগদ ৩‌.‌১৫ লক্ষ টাকা। শুধু বড়রা নন, ১৮ বছরের কম বয়সিও অভিনব এই চ্যালেঞ্জে অংশ নিতে পারবেন। তবে তাদের আবেদন করতে হবে জুনিয়র ক্যাটেগরিতে। ইতিমধ্যে নাসার তরফে বিশ্বের তাবড় তাবড় আবিষ্কারকদেরও এতে অংশ নিতে আহ্বান জানানো হয়েছে। নাসার পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ২০২৪ সালের চাঁদে তাঁদের অভিযানে এটিকে ব্যবহার করা হবে।

Related Articles

Back to top button
Close