fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

পুজোর আগেই লালার বিসর্জন ঘাট সংস্কারের আশ্বাস বিজেপি নেতাদের

নিজস্ব প্রতিনিধি, কাটলিছড়া: লালা শহরের একমাত্র বিসর্জন ঘাটটি অবিলম্বে সংস্কারের দাবিতে সোচ্চার হলেন বিজেপি সহ হিন্দু জাগরণ মঞ্চের নেতা কর্মীরা। মংগলবার হাইলাকান্দি জেলা  বিজেপির  ওবিসি মোর্চার জেলা  সভাপতি প্রানতোষ নাথ, প্রাক্তন জেলা সভাপতি গোবিন্দ লাল চ্যাটার্জি, শহর মন্ডল সভাপতি সঞ্জিত ঘোষ প্রমুখের নেতৃত্বে এক প্রতিনিধিদল  লালা কলেজ রোডের ধলেশ্বরী নদীর বিসর্জন ঘাটটি সরেজমিনে পর্যবেক্ষণ করে  প্রতিবাদে সোচ্চার হয়ে ওঠেন।। বিসর্জন ঘাটের বেহাল অবস্থায় তাঁরা তীব্র ক্ষোভ ব্যাক্ত করে বিষয়টি লালা মিউনিসিপ্যাল বোর্ডের কার্যনির্বাহী আধিকারিক জ্যোতির্ময় দৈমারির দৃষ্টিগোচর করেন তারা ।

দীর্ঘ দিন থেকে সংস্কারের অভাবে রীতিমতো ভেঙ্গে পড়েছে লালা কলেজ রোডের এক মাত্র বিসর্জন ঘাটটি।। এদিকে দুর্গাপূজা আসন্ন।তাই অবিলম্বে কলেজ রোডের বিসর্জন ঘাট সংস্কারের দাবি জানান  বিজেপি ও হিন্দু জাগরণ মঞ্চ সহ  শহরের বিভিন্ন সর্বজনীন দুর্গাপূজা কমিটির কর্মকর্তারা । এদিন লালা পুরসভার বড়বাবু  শুভংকর সিংহ, বাস্তুকার ননীগোপাল সিংহ কলেজ রোডের বিসর্জন ঘাটটি সরজমিনে পর্যবেক্ষণ করেন। প্রতিনিধি দলে অন্যদের মধ্যে বিজেপির ওবিসি মোর্চার জেলা  সভাপতি  প্রানতোষ পান্না নাথ, শহর মণ্ডল সভাপতি সঞ্জিত ঘোষ,প্রাক্তন জেলা সভাপতি গোবিন্দ লাল চ্যাটার্জি,হিন্দু জাগরন মঞ্চের চিরঞ্জীব নাথ,সুজিত ঘোষ,মধু গোয়ালা,অনুপ সাহা,সম্ভু নাথ,রাজা দে,অনুপ সাহা প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়ুন: দিনহাটার বিভিন্ন বাজারে ইলিশ মাছের দাম আকাশছোঁয়া

পরিদর্শন কালে তারা লালা শহরের এক মাত্র বিসর্জন ঘাটের দুরবস্থায়  তীব্র অসন্তোষ ব্যক্ত করে বলেন,  উপযুক্ত  সংস্কারের অভাবে বিসর্জন ঘাটটি  ভেঙেচুরে শেষ হয়ে গেছে। ঘাটের সিঁড়ি ভেঙে গিয়ে নদীর সঙ্গে মিশে গেছে । দোরগোড়ায় শারদীয়  দূর্গা পুজা ।লালা শহরের প্রতিটি দুর্গা পুজোর মুর্তি বিসর্জনের এক মাত্র ঘাট হচ্ছে এটি।কিন্ত বর্তমানে যে অবস্থা তাতে দুর্গাপূজার সময় মূর্তি বিসর্জন কোন ভাবেই সম্ভব নয়।কারণ ঘাটের বেশ কটা সিড়ি নদী গর্ভে তলিয়ে গেছে।এই ঘাটের পরিকাঠামো উন্নয়ন নিয়ে সবার ভাবনা থাকা প্রয়োজন বলে অভিমত ব্যক্ত করেন বিজেপি নেতার। লালা মিউনিসিপ্যাল বোর্ডের কার্যনির্বাহী আধিকারিক জ্যোতির্ময় দৈমারির সাথে এনিয়ে মোবাইলে কথা বলেন প্রানতোষ পান্না নাথ।অবিলম্বে বিসর্জন ঘাটটি  নতুন করে নির্মানের দাবি জানান তিনি ।যদিও পুজোর আগে নতুন ঘাটের নির্মাণ কাজ শেষ করা সম্ভব হবে না।তাই এখন বিসর্জন ঘাট সংস্কার করে পুজোর পর নতুন ঘাট নির্মাণের কাজে হাত দেওয়া হবে বলে বিজেপি নেতা ও পুরসভার সহযোগে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।।

প্রানতোষ নাথ পান্না জানান, ইতিমধ্যে বিসর্জন ঘাটের তলিয়া যাওয়া সিড়ি সংস্কার করে ব্যবহারের উপযোগী করে দেওয়া হবে।পুজোর পর নতুন ঘাটের কাজ শুরু হবে বলে তাদের পুরসভার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে ।

Related Articles

Back to top button
Close