fbpx
আন্তর্জাতিকগুরুত্বপূর্ণহেডলাইন

তীব্র আর্থিক সংকটে বেইরুট…ধ্বংস খাদ্য ভান্ডার, বেঁচে আছে একমাসের খাদ্য সামগ্রী!

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: ধবংসস্তূপে পরিণত হয়েছে লেবাননের রাজধানী বেইরুট। গোটা দেশের অর্থনীতি এই মুহূর্তে ধসে পড়েছে। সমগ্র ঘটনায় পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন দেশের অর্থ ও বাণিজ্য মন্ত্রী রাউল নেহম।

দেশের বাণিজ্য মন্ত্রীর কথায় আক্ষেপ ঝড়ে পড়েছে। নেহম জানিয়েছেন, বেইরুটের বিস্ফোরণ পরবর্তী পরিস্থিতি মোকাবিলা করার মত অর্থনৈতিক সামর্থ্য নেই তার দেশের। তিনি এই বিপর্যয় মোকাবিলার জন্য আন্তর্জাতিক সমাজকে এগিয়ে আসার জন্য অনুরোধ করেছেন। লেবাননের অর্থমন্ত্রী জানিয়েছেন, এই ভয়াবহ বিস্ফোরণে শত শত কোটি ডলারের আর্থিক ক্ষতি হয়েছে।

এখন দেশে যে পরিমাণ শস্য মজুত রয়েছে তাতে বড়জোর আর এক মাস চলবে বলে মনে করছে সরকারের আধিকারিকরা।
বেইরুট বন্দরের পাশে যে জায়গাটিতে প্রবল এই বিস্ফোরণ ঘটে তার ঠিক পাশের সাদা রঙয়ের বিশাল ভবনটি হল লেবাননের প্রধান খাদ্য ভাণ্ডার। দিনের পর দিন বিদেশ থেকে শস্য আমদানি করে ওই সাদা বাড়িতেই মজুত করা হত। বিস্ফোরণের তীব্রতায় এক লাখ ২০ হাজার টন ধারণ ক্ষমতার এই ভবনটি পুরোপুরি ধ্বংস হয়ে গিয়েছে। ধ্বংস হয়ে গিয়েছে খাদ্য ভান্ডার।

আরও পড়ুন:সিএজি পদে নিয়োগ পেলেন জম্মু-কাশ্মীরের প্রাক্তন উপরাজ্যপাল গিরিশ চন্দ্র মুর্মু

তবে সে দেশের অর্থমন্ত্রী বলেছেন, বিশ্বের কয়েকটি দেশ ইতিমধ্যেই সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছে। আসলে এই পরিস্থিতি মোকাবিলায় আন্তর্জাতিক সহায়তা নেওয়া ছাড়া আর কোনও বিকল্প নেই। এদিকে, বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে চিকিৎসায় সহযোগিতা করারর প্রস্তাব দিয়েছে বলেও জানিয়েছেন লেবাননের স্বাস্থ্যমন্ত্রী হামাদ হাসান।

তিনি জানিয়েছেন, বিভিন্ন দেশের পক্ষ থেকে বেইরুটেতে ভ্রাম্যমাণ হাসপাতাল তৈরির প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছে।
লেবাননের অর্থনীতিবিদ জিয়াদ নাসরুদ্দিন জানিয়েছেন, লেবানন প্রতিষ্ঠার পর এত বড় বিপর্যয় আর কখনও ঘটেনি।

Related Articles

Back to top button
Close