fbpx
কলকাতাগুরুত্বপূর্ণপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

বাংলার শিক্ষা ও সংস্কৃতিকে ধ্বংস করার চক্রান্ত চলছে: পার্থ

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ‘শুধু মূর্তি নয়, বাংলার শিক্ষা, সাহিত্য, ঐতিহ্য ও সংস্কৃতিকে ধ্বংস করার প্রচেষ্টা চলছে।’ তোপ দাগলেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। শনিবার বিদ্যাসাগর একাডেমিতে বিদ্যাসাগরের প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করতে গিয়ে পার্থ বলেন, ‘ধর্মান্ধতায় বাঙালি সংস্কৃতিকে দুরমুশ করতে চাইছে।’ কার্যত নাম না করে এদিন পার্থ বিজেপিকে নিশানা করেন। বিদ্যসগরের জন্মদিনের মঞ্চকে ব্যবহার করে রাজনৈতিক বার্তা দিলেন। যদিও শিক্ষামন্ত্রীর এই নজির বিরল নয়।

এদিন রাজ্য জুড়ে সাড়ম্বরে পালিত হল ঈশ্বর চন্দ্র বিদ্যাসাগরের দ্বিশত জন্ম বার্ষিকী। এমনি একটি মঞ্চ থেকে এদিন শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘বাংলার এই বঞ্চনার প্রতিবাদে সকলকে একত্রিত হতে হবে। দাবানল রাজনীতি দিয়ে বাংলার শিক্ষা সাহিত্য সংস্কৃতি কে পদদলিত করার চেষ্টা করছে। তাই শুধু সাহিত্য ইতিহাস মেধা বাঁচালে হবে না। সকলকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। কারণ রবিন্দ্র নাথ ঠাকুর, বঙ্কিম চন্দ্র চট্টোপাধ্যায়, কাজী নজরুল ইসলাম, মাইকেল মধুসূদন দত্তকে বাঙালির মন থেকে মুছে দিতে চাইছে। রবীন্দ্রনাথ দু’দেশের জাতীয় সঙ্গীতের রচয়িতা। তাঁকে কি এভাবে মুছে ফেলা যাবে। বঙ্কিম চন্দ্র যিনি ‘বন্দে মাতরম’ ডাকের রচয়িতা। তাদের সকলকে মুছে দিতে চাইছে।বাংলার মুখ্যমন্ত্রী এ সময়ে যে কঠিন লড়াই করছেন কোভিড পরিস্থিতিতে। এক্ষেত্রে ক্লাব গুলিও ভালো কাজ করছে মানুষের জন্য। তাই ক্লাবকেও বাঁচাতে হবে। মানুষকেও বাঁচাতে হবে এবং বিদ্যসগর কেও বাঁচাতে হবে।’

Related Articles

Back to top button
Close