fbpx
কলকাতাহেডলাইন

বলবিন্দর সিংয়ের পাগড়ি খুলে শিখ সম্প্রদায়কে অপমান করেছে বাংলার পুলিশ, প্রতিবাদে সরব বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা, ৯ অক্টোবর: বিজেপির নবান্ন অভিযান ঘিরে উত্তেজনার আঁচ অব্যাহত। হাওড়া ময়দান এলাকায় বিজেপির মিছিল থেকে বিজেপি নেতা প্রিয়াঙশু পাণ্ডের দেহরক্ষী বলবিন্দার সিংয়ের কাছ থেকে পুলিশ একটি আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার করে। পুলিশের বক্তব্য, লাইসেন্স থাকলেও সেটি জম্মু কাশ্মীরের লাইসেন্স। অন্যরাজ্যে এই লাইসেন্স বেআইনি। মূলত এই ইস্যুতেই বিজেপিকে কোণঠাসা করতে চাইছে তৃণমূল। এবার তার পাল্টা বিজেপির অভিযোগ পাগড়ি খুলে বাংলার পুলিশ শিখ ধর্মীয় আবেগে আঘাত দিয়েছে।

রাজ্যের কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক কৈলাস বিজয়বর্গীয় টুইটে লিখেছেন, ‘ শিখেরা পাগড়িকে অত্যন্ত পবিত্র মনে করেন। পশ্চিমবঙ্গের পুলিশ শুধু বর্বর নয় নিকৃষ্ট। মমতাজি আপনার পুলিশকে সংযত করুন।’ এরপরই তিনি মুখ্যমন্ত্রীকে কটাক্ষ করে বলেন,’কোন গোল টুপিওয়ালাকে পুলিশ টুপি খোলার হিম্মৎ করবে! দিদি তার উর্দি খুলে নেবেন।’

আরও  পড়ুন: নবান্ন অভিযানে পুলিশি জুলুম, সংসদে স্বাধিকার ভঙ্গের অভিযোগ জানাবে বিজেপি

কেন্দ্রীয় সহ পর্যবেক্ষক অরবিন্দ মেনন বলেন, ‘সর্দার বলবিন্দর সিংহের পাগড়ি খুলে বাংলার পুলিশ দেশের সব শিখদের অপমান করেছে। আজ মনে হচ্ছে বাংলায় ফের মুঘল শাসন স্থাপিত হয়েছে। বাংলায় কি এক বিশেষ সম্প্রদায়কে ছেড়ে বাকিদের ধর্মীয় ভাবনার সম্মান নেই!’ কেন্দ্রীয় বন ও পরিবেশ প্রতিমন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয় টুইট করেছেন, ‘ এই ছবি দেখে আমি স্তব্ধ হয়ে গিয়েছি। বাংলার পুলিশ এমনটা করলে ( সবাই বলছেন এটা সত্যি) দৃষ্টান্ত মূলক শান্তি হওয়া উচিত। আমি তেজিন্দার বাড্ডা ভাইকে বলবো, আপনি এই ঘটনার জন্য আদালতে যান।’

Related Articles

Back to top button
Close