fbpx
কলকাতাপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

পথ দুর্ঘটনায় কলকাতা পুলিশের প্রথম মহিলা ওসি-সহ ৩ মর্মান্তিক মৃত্যু

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক:  জাতীয় সড়কে দুর্ঘটনায় মৃত্যু হল রাজ্য পুলিশের এক শীর্ষ আধিকারিকের। দুর্ঘটনায় মারা গিয়েছেন পুলিশ আধিকারিকের গাড়ির চালক এবং দেহরক্ষীও। ঘটনাটি ঘটেছে দুর্গাপুর এক্সপ্রেসওয়ের উপর হুগলির দাদপুর থানা এলাকায়।

শুক্রবার লকডাউনের দিন ভয়াবহ দুর্ঘটনা। সাতসকালে দাঁড়িয়ে থাকা ১২ চাকার বালির লরির পিছনে ধাক্কা মারে একটি চার চাকার গাড়ি। ঘটনায় মৃত্যু হয় এক পুলিশ অফিসার সহ মোট তিনজন। মৃত পুলিশ অফিসারের নাম দেবশ্রী চট্টোপাধ্যায়। তাঁর বাড়ি কলকাতার বেহালার পর্ণশ্রীতে। তিনি রাজ্য পুলিশের ১২ব্যাটেলিয়নের কম্যান্ডিং অফিসার ছিলেন। শিলিগুড়ির ডাবগ্রামে ছিল তাঁর পোষ্টিং।

ওই গাড়িতেই থাকা বাকি দু’জনের মধ্যে একজন হলেন দেবশ্রীর দেহরক্ষী ও একজন গাড়ির চালক। তাঁদের দু’জনের এখনও পরিচয় জানা যায়নি। শুক্রবার সকাল ৬টা ১০-এ কলকাতার দিকে যাওয়ার পথে নিয়ন্ত্রণ হারায় তাঁদের গাড়ি। দাদপুর থানার হোদলা ব্রিজের কাছে দাঁড়িয়ে থাকা একটি বালির লরির পিছনে সজোরে ধাক্কা মারে গাড়িটি। তড়িঘড়ি রাস্তায় কর্মরত সিভিক ও পুলিশকর্মীরা তিনজনকে উদ্ধার করে চুঁচুড়া সদর হাসপাতালে নিয়ে যান। তাঁদের পরীক্ষা-নীরিক্ষা করে চিকিৎসকরা মৃত বলে ঘোষণা করেন। ঘটনার পর চুঁচুড়া হাসপাতালে যান হুগলির গ্রামীণ পুলিশ সুপার তথাগত বসু।

আরও পড়ুন: পরীক্ষার আগে পরীক্ষা কেন্দ্রের বদল! চরম বিভ্রান্তিতে নেট পরীক্ষার্থীরা

দেবশ্রী চট্টোপাধ্যায় কলকাতা পুলিশে সাব ইনস্পেক্টর হিসাবে যোগ দিয়েছিলেন। কলকাতা পুলিশের অন্যতম দক্ষ অফিসার বলে পরিচিত ছিলেন তিনি। দীর্ঘ দিন কলকাতা পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগে কর্মরত ছিলেন তিনি। এর পর তিনি কলকাতার উত্তর বন্দর থানার ওসির দায়িত্বও পালন করে। পরবর্তীতে পদোন্নতি পেয়ে তিনি রাজ্য পুলিশে বদলি হয়ে যান। রাজ্য পুলিশের সশস্ত্র ব্যাটালিয়নের দায়িত্ব পান। তাঁর স্বামীও কলকাতা পুলিশের আধিকারিক ছিলেন। তিনি স্বেচ্ছা অবসর নেন। তাঁদের এক ছেলে রয়েছে।

 

 

 

 

 

Related Articles

Back to top button
Close