fbpx
গুরুত্বপূর্ণপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

সাত বছরের দীর্ঘ লড়াইয়ে হয়নি সমস্যার সমাধান, এবার অনলাইন পিটিশনে আপার প্রাইমারি সংগ্রামী মঞ্চ

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: সাত বছরের নিয়োগ বঞ্চনার প্রতিবাদে আপার প্রাইমারী সংগ্রামী মঞ্চের নেতৃত্বে ধারাবাহিক আন্দোলনে  নামেন  আপার প্রাইমারী নিয়োগ প্রার্থীরা। মেধা তালিকায় একাধিক অসঙ্গতির অভিযোগে গত ৫ ই-জুন স্কুল সার্ভিস কমিশনে গেজেট গণ ইমেলের পর আবারো ৮ই জুন আন্দোলনে নামলেন তাঁরা। নিয়োগ প্রার্থীদের স্বাক্ষর সম্বলিত অনলাইন পিটিশনে স্কুল সার্ভিস কমিশনের যাবতীয় অসঙ্গতি লিপিবদ্ধ করে অসঙ্গতিগুলি দূর করে মামলার জটে আটকে থাকা নিয়োগ প্রক্রিয়া দ্রুত শুরু করার জন্য মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী,মাননীয় শিক্ষামন্ত্রী,মাননীয় আইনমন্ত্রী ও মাননীয় রাজ্যপাল সহ হাইকোর্টের রেজিস্টার জেনারেলের কাছে সহানুভূতি প্রার্থনা করলেন তাঁরা।

তাঁদের দাবি দীর্ঘ ছয় বছরের আন্দোলন ও আইনি প্রক্রিয়ার পর কমিশন ৪ঠা অক্টোবর ২০১৯ যে মেরিট লিস্ট প্রকাশ করেছে তাতেও বিস্তর অসঙ্গতি রয়েছে। প্রায় বারো হাজার চাকরি প্রার্থী কমিশনে এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ জানান। পাশাপাশি অনেকেই আদালতের দ্বারস্থ হন।
মঞ্চের অভিযোগ মেধাতালিকায় ইন্টারভিউ দেওয়া সকল প্রার্থীর নাম নেই। টেট ও অ্যাকাডেমিক স্কোরেও রয়েছে বিস্তর অসঙ্গতি। ইন্টারভিউতে ডাকার ক্ষেত্রে শূন্যপদ ও প্রার্থীর ১ : ১.৪ রেশিও মানা হয়নি। নিয়োগ বিধিতে ইন্টারভিউ তালিকা প্রকাশের আগে পর্যন্ত শূণ্যপদ আপডেটের কথা থাকলেও সাত বছরের শুণ্যপদ তেমন বাড়েনি বরং কোনো কোনো ক্ষেত্রে তা কমে গেছে। এমনকি নব স্হাপিত বিদ্যালয় গুলির অনুমোদিত ৫১০৮ টি শূন্যপদও ফাইনাল ভেকেন্সিতে যুক্ত হয়নি।এছাড়াও তাঁদের অভিযোগ কোনও পদে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত প্রার্থী না পাওয়া গেলে গেজেট অনুযায়ী সেই শূণ্যপদে প্রশিক্ষণহীন প্রার্থী নিয়োগ করা যায়। অথচ বেশকিছু ক্ষেত্রে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত প্রার্থী না পাওয়া গেলেও প্রশিক্ষণহীনদের ডাকে নি কমিশন। ফলে সুযোগ থেকে বঞ্চিত হয়েছেন তাঁরা। এই প্রার্থীরা মূলত প্রতিবন্ধী বা SC, ST, OBC সম্প্রদায়ের।চাকরি প্রার্থীদের দাবী ঐ সমস্ত শূণ্যপদে গেজেট অনুযায়ী প্রশিক্ষণহীনদের ডাকুক কমিশন।
আপার প্রাইমারি সংগ্রামী মঞ্চের এই লাগাতার আন্দোলনে আপার প্রাইমারী শিক্ষক নিয়োগের গতিপথ কোন দিকে যায় সেটাই এখন দেখার। তবে মঞ্চের দাবি এখন আর শুধু নিয়োগ প্রার্থীরা নয়, তাঁদের সমর্থনে পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের বহু বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী মানুষজন। আপার প্রাইমারী শিক্ষক নিয়োগ সমস্যার দ্রুত সমাধান না হলে আরো বৃহত্তর আন্দোলন গড়ে তুলবেন বলে জানিয়েছেন তাঁরা।
আপার প্রাইমারী সংগ্রামী মঞ্চের পক্ষে অষ্টাপদ শাসমল , অর্পিতা প্রামাণিক, অপূর্ব ঘোষ, দেবাশীষ মুদি।

Related Articles

Back to top button
Close