fbpx
কলকাতাগুরুত্বপূর্ণশিক্ষা-কর্মজীবনহেডলাইন

ধ্রুপদী ভাষার তালিকায় নেই বাংলা, প্রতিবাদে মমতাকে চিঠি অধীরের

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: নতুন জাতীয় শিক্ষানীতির ধ্রুপদী ভাষার তালিকায় স্থান পায়নি বাংলা ভাষা। আর তাতেই বেজায় চটে সরাসরি মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি লিখলেন কংগ্রেস সাংসদ তথা লোকসভায় বিরোধী দল নেতা অধীর চৌধুরী।

তিনি চান, এ ব্যাপারে হস্তক্ষেপ করুক পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এই মর্মে রবিবার তিনি মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি লেখেন। পরে সেই চিঠির প্রতিলিপিও সোশ্যাল  মিডিয়ায় তুলে ধরেন অধীর। চিঠিতে কেন্দ্রের এই বাংলাবিরোধী সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে পশ্চিমবঙ্গে প্রতিবাদ গড়ে তুলতে মুখ্যমন্ত্রীকে আবেদন জানিয়েছেন অধীর।

কংগ্রেসের সংসদীয় দলনেতা অধীর চৌধুরি সংসদে প্রশ্ন তোলেন, সংস্কৃত ও হিন্দির পাশাপাশি নতুন শিক্ষানীতিতে ধ্রুপদী ভাষা হিসেবে গণ্য হয়েছে তামিল, তেলুগু, কন্নড়, মালয়ালম ও ওড়িয়া। কিন্তু ভারতের জাতীয় সঙ্গীত যে ভাষায় রচিত সেই ভাষাকেই ব্রাত্য করা হল?‌ অধীরের পাশাপাশি এই প্রশ্নে এখন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও সুর চড়ান কিনা সেটাই দেখতে চাইছে রাজ্যবাসী।

প্রাক্তন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি এর আগেও এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে চিঠি দিয়েছেন। ২২ শ্রাবণ বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের প্রয়াণ দিবসের দিন বাংলা ভাষার প্রতি তাঁর অবদানের কথা প্রধানমন্ত্রীর দরবারে তুলে ধরেন অধীর।

বরাবরই কেন্দ্রের বঞ্চনার শিকার পশ্চিমবঙ্গ। এবার বাংলা ভাষাকেই ব্রাত্য করে দেওয়ার অভিযোগ উঠল কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে। যা নিয়ে সরব হয়েছেন কংগ্রেসের সংসদীয় দলনেতা অধীর চৌধুরি। যদিও এ বিষয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কোনও প্রতিক্রিয়া জানান নি।

Related Articles

Back to top button
Close