অফবিটলাইফস্টাইলহেডলাইন

ঠিক কোন সময় সেক্স করা উচিত নয়, আসুন জেনে নিই

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: আমরা এর আগেই আলোচনা করেছিলাম সেক্সের উপকারিতা নিয়ে আলোচনা করেছিলাম। শুধু মাত্র সাময়িক সুখের জন্য নয়, সেক্স শরীরকে সুস্থ রাখতেও সমানভাবে উপযোগী। তবে সেই সহবাসের ক্ষেত্রেও মেনে চলা উচিত বেশকিছু নিয়ম-কানুন। ঠিক কোন কোন সময় আপনি বিরত থাকবেন সেক্স থেকে, সেটা জেনে নেওয়া দরকার।

১. ইউটিআই রোগে
ইউটিআই বা ইউরিনারি ট্র্যাক্ট ইনফেকশনে আক্রান্ত হলেও সেক্স করা উচিত নয়। কারণ, এতে রোগাক্রান্তের রোগের পরিধি বিস্তারের সম্ভাবনা থাকে প্রকট, তেমনই সঙ্গীর শরীরেও সেই রোগ ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা থেকেই যায়।

২. গর্ভাবস্থায় নিরাপদ, কিন্তু…
গর্ভাবস্থায় প্রথম কয়েকমাসের পর থেকে সেক্স করা উচিত নয়। গর্ভাবস্থায় কোন সময় সেক্স জরুরী তা চিকিৎসকের পরামর্শ মেনে করা প্রয়োজন।

৩. মানসিক দ্বন্দ্ব
সহবাসের প্রথম ও শেষ কথা মানসিক তৃপ্তি। কিন্তু মনের মধ্যে যদি কোনো দ্বন্দ্ব কাজ করে তা অবশ্যও ওই পরিস্থিতি এড়িয়ে চলা ভালো। সেটা হতে পারে সঙ্গীর সঙ্গে সঙ্গিনীর বা যে কোনো এক জনের মনের অস্বাভাবিক অবস্থা।

৪. সন্তান প্রসবের পর
চিকিৎসা শাস্ত্রে কোনো বাধ্যবাধকতা নেই। কিন্তু, প্রসবের পর শরীরকে স্বাভাবিক অবস্থানে ফিরে আসার সময় দেওয়ার জন্য অনেকেই ৬ সপ্তাহ অপেক্ষা করার কথা বলেন।

৫. যৌনাঙ্গের জ্বালা-যন্ত্রণায়
বিভিন্ন কারণে যৌনাঙ্গে জ্বালা-যন্ত্রণার সৃষ্টি হতে পারে। এই সব ক্ষেত্রে সেক্স পুরোপুরি এড়িয়ে চলা ভালো। নইলে বিপদ বাড়তে পারে।

৬. ওষুধ এবং মাদক
কোনো কড়া ওষুধ অথবা অ্যান্টিবায়োটিক নিতে থাকলে সেক্সে নিষেধ করেন চিকিৎসকরা। তবে সেটা ওষুধের চরিত্রের উপর নির্ভর করে। অন্য দিকে উত্তেজনা বাড়াতে সেক্সের সময় মাদকের ব্যবহার ভবিষ্যতে বিপদ ডেকে নিয়ে আসতে পারে।

৭. যখন নিরাপদ নয়
অবাধ যৌন মিলনের ফলে হতে পারে সন্তানধারণ। গর্ভনিরোধক ব্যবস্থা না থাকলে সেক্স এড়িয়ে চলতে হবে। গর্ভনিরোধক ব্যবস্থা মজুত রাখাই শ্রেয়।

৮. জোর নয়
জোর করে সেক্স হয় না। দুইজনের দিক থেকেই সম্মতি না মিললে এক জনের ইচ্ছেয় সেক্স করা উচিত নয়।

Related Articles

Back to top button
Close