fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

লকডাউনের কারণে বন্ধ ব্যবসা, রাস্তায় পান ফেলে বিক্ষোভে শামিল চাষীরা

মিলন পণ্ডা, (পূর্ব মেদিনীপুর): লকডাউনের কারণে পান ব‍্যবসা একেবারে বন্ধ হয়ে যাওয়ায় পূর্ব মেদিনীপুর জেলাজুড়ে পান চাষিদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হচ্ছে। রাজ্য সরকার ফুল চাষ সহ বেশ কিছু ক্ষেত্রে ছাড় দেওয়ার কথা ঘোষণা করলেও কিন্তু পান ব্যবসার ক্ষেত্রে কোন ছাড়ের ঘোষণা করেনি। এর ফলে ব্যাপক সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছেন পূর্ব মেদিনীপুর জেলার পানচাষীরা। বুধবার সকাল থেকে অবস্থান বিক্ষোভে শামিল হলেন পূর্ব মেদিনীপুর জেলার ময়নার পানচাষীরা।

 

এদিন তারা রাস্তার উপর পান ফেলে বেশ কিছুক্ষণ অবস্থান করে বিক্ষোভ দেখান। পূর্ব মেদিনীপুর জেলায় ধান চাষের পরেই অধিকাংশ মানুষের পান চাষের ওপর নির্ভরশীল। করোনার কারণে পান রপ্তানি একেবারে বন্ধ হয়ে গিয়েছে। এরফলে গত প্রায় দু মাস ধরে পান নষ্ট হচ্ছে। তাই পান চাষের ছাড় দেওয়ার দাবিতে বুধবার সকাল থেকে পূর্ব মেদিনীপুর জেলার ময়না থানার অন্তর্গত গোজিনা গ্রাম পঞ্চায়েতের স্কুল মাঠ সংলগ্ন রাস্তার উপর পান ফেলে অবস্থান বিক্ষোভে শামিল হন পান চাষীরা। এদিন প্রায় ২৫০ জন পান চাষী রাস্তার ওপর পান ফেলে সামাজিক দূরত্ব মেনে হাতে পোষ্টার নিয়ে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন।

 

পান চাষে ছাড়ের পাশাপাশি জেলার পানচাষিদের দাবি, অন্যান্য ক্ষেত্রে রাজ্য সরকার যেভাবে আর্থিক সাহাষ্য ঘোষণা করছেন কিন্তু পান চাষীদের জন্যও কোনও আর্থিক ভাবে ঘোষণা করতে হবে। এছাড়াও জেলার অধিকাংশ পানচাষি ঋণ নিয়ে পান চাষ করেছেন। এমন পরিস্থিতিতে সরকারের পক্ষ থেকে সমস্ত ঋণ মুকুব করতে হবে।

 

বিক্ষোভে থাকা এক পান চাষি বলেন, পান চাষ করে গোটা সংসার নির্ভর করে। জেলা পানচাষি সমন্বয় কমিটির আহ্বায়ক অশোক কুমার পাঠক বলেন, বর্তমান পরিস্থিতিতে পানচাষিদের অর্ধাহারে দিন কাটাতে হচ্ছে। আর কিছুদিন পর হয়তো পানচাষিদের না খেতে পেয়ে মরতে হবে।

Related Articles

Back to top button
Close