fbpx
দেশহেডলাইন

“অস্পৃশ্যের মতো আচরণ করেছিল বড় দলগুলি”, ৫টি আসন জয় করে ক্ষোভ উগরে দিলেন ওয়াইসি

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: বিহারের ভোটগণনায় একপ্রকার অবিশ্বাস্য ফলাফল হায়দরাবাদের সাংসদ আসাদউদ্দিন ওয়েইসির দল এআইএমএইএমের। অথচ, গোটা দেশের বিরোধী শিবির তাঁর দলের উপরই লাগিয়ে দিয়েছে ‘ভোট কাটোয়া’র তকমা। কংগ্রেসের অভিযোগ, বিজেপির বি টিম হিসেবে কাজ করছেন ওয়েইসি। যাবতীয় অভিযোগের মধ্যে এবার তথাকথিত বড় দলগুলিকে পালটা তোপ দাগলেন ওয়েইসি। নিজের দলের সাফল্যের দিনে তিনি খেললেন ‘ভিকটিম কার্ড’। তিনি বলেছেন,” আমাদের বিহারের মুখ্যমন্ত্রী ব্যক্তিগত ভাবে সব দলের প্রধানদের সঙ্গে দেখা করেছেন। কিন্তু আমাদের কেউ ছুঁয়েও দেখেনি। বড় দলগুলি আমার সঙ্গে অস্পৃশ্যের মতো। আমরা প্রত্যেক মুসলিম নেতার সঙ্গে যোগাযোগ রাখি।”

বিহারের সীমাঞ্চল এলাকায় ২৪ আসনে মুসলিম জনসংখ্যা ৪০-৭০ শতাংশ। এই আসনগুলি চিরাচারিতভাবে কংগ্রেস আরজেডির দখলে যায়। কিন্তু এবার এই ২৪ আসনের মধ্যে ১৫টি বের করে নিয়েছে এনডিএ। এর একটা বড় কারণ হলেন ওয়েইসি। তাঁর দলের ভোট কাটাকাটি সুবিধা দিয়েছে গেরুয়া শিবিরকে। যদিও ওয়েইসি দাবি করলেন, বিহারে তিনি ভোট কাটোয়া হয়ে থাকতে চাননি। বিজেপিকে হারানোই তাঁর দলের লক্ষ্য ছিল। জোট করে নির্বাচন লড়ার জন্য সব বড় দলের সঙ্গেই যোগাযোগ করেছিলেন। কিন্তু তথাকথিত বড় দলগুলি তাঁকে পাত্তাই দিতে চাননি। ফলপ্রকাশের পর হায়দরাবাদের সাংসদ বলেন,”রাজনীতিতে ভুল থেকেই শিক্ষা নিতে হয়। আমাদের বিহারের রাজ্য সভাপতি সব বড় রাজনৈতিক দলের নেতাদের সঙ্গে ব্যক্তিগত স্তরে যোগাযোগ করেছিলেন। কিন্তু সবাই আমাদের সঙ্গে অস্পৃশ্যের মতো আচরণ করেছে। বহু মুসলিম নেতার সঙ্গেও আমরা কথা বলেছিলাম। কিন্তু কোনও সমীকরণই তৈরি হয়নি। আমি বলতে পারব না কেন।” হায়দরাবাদের সাংসদ বলছেন, “এই দিনটা আমার দলের জন্য খুব জরুরি একটা দিন। বিহারের মানুষ আমাদের আশীর্বাদ করেছেন। জানিনা বিহারবাসীকে কী বলে ধন্যবাদ দেব।”

তবে দুই জোটের তীব্র লড়াইয়ের মধ্যেও আলাদা করে ৫টি আসন জিতে নেওয়ার সাফল্যে ওয়াইসি খুশি। তিনি বলেন, ‘বিহারের মানুষ ভোট দিয়ে আমাদের আশীর্বাদ করেছেন, তাঁদের কী ভাবে ধন্যবাদ দেব জানি না। এটা আমাদের দলের জন্য খুব ভাল দিন। এই মহামারী পরিস্থিতিতেও যে মানুষ এগিয়ে এসেছেন, সে জন্য তাঁদের ধন্যবাদ। আমরা বন্য়াদুর্গত এলাকাগুলিতে মানুষের জন্য কাজ করব। আমাদের হয়তো এখনও কিছু খামতি থেকে গেছে যে জন্য আমরা আরও বেশি আসন জিততে পারলাম না। আমরা আলোচনা করে কর্মপন্থা ঠিক করব এবং পরের বার আরও ভাল ফল করব।” প্রসঙ্গত, বিহারেভোট প্রচার করার সময়ে আইমিম-কে বিজেপির ‘বি টিম’ বলে কটাক্ষ করেছিল কংগ্রেস। সে নিয়ে ওয়াইসি এদিন বলেন, ‘ওরা ওদের হতাশা লুকোচ্ছে। ওরা হেরে গেলে ওয়াইসিকে দোষ দেবে। অথচ বিহারে আমাদের জার্নি শুরু হয়েছে পাঁচ বছর আগেই। আমরা সীমাঞ্চলের উন্নয়ন নিয়ে কাজ করেছি। আমরা পরে ঠিক করব, আমরা কাদের সমর্থন করব। সীমাঞ্লের জন্য লড়াই আপাতত চলবেই।’

 

Related Articles

Back to top button
Close