fbpx
দেশহেডলাইন

কোয়ারেন্টিন শেষে পরিযায়ী শ্রমিকদের দেওয়া হচ্ছে কন্ডোম ও গর্ভনিরোধক ওষুধ!‌

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: একে একে পরিযায়ী শ্রমিকরা ফিরছেন নিজেদের রাজ্যে। নিয়ম মেনে ১৪ দিন কোয়ারেন্টিনে কাটানোর পর ফিরতে পারছেন বাড়িতে। কিন্তু এবার সেই শ্রমিকদের হাতেই কন্ডোম কিংবা গর্ভনিরোধক ওষুধ বিতরণ করছে বিহার সরকারের স্বাস্থ্য দপ্তর। অহেতুক জনসংখ্যা বৃদ্ধি রুখতেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে খবর।

শুধু তাই নয়, যাঁরা ইতিমধ্যে বাড়ি পৌঁছে গিয়েছেন, তাঁদের ঘরে ঘরে গিয়ে বিনামূল্যে কন্ডোম বা গর্ভনিরোধক ওষুধ দিচ্ছে বিহার স্টেস্ট হেলথ মনিটরিংয়ের চিকিৎসকরা এবং স্বাস্থ্যকর্মীরা। কিন্তু খাদ্য, বস্ত্র, বাসস্থানের পাশাপাশি কেন এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিহার সরকার? আসলে  পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের পক্ষ থেকে একটি গণনা করা দেখা গিয়েছে, এই মুহূর্তে ওই রাজ্যে প্রায় ৩০ লক্ষ পরিযায়ী শ্রমিক ফিরেছেন। আর এদের অধিকাংশ পরিবারেই তিন থেকে চারজন সন্তান রয়েইছে। তাই জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণের জন্যই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে স্থানীয় স্বাস্থ্য দফতর।

আরও পড়ুন: ব্রাত্য শোভন! নাম নেই, তাঁর হাইপ্রোফাইল ‘বান্ধবীর’, তবে কি এবার ঘর ওয়াপসি!

২০১৬ সালে জাতীয় পরিবার স্বাস্থ্য সমীক্ষা অনুযায়ী, বিহারেই জন্মহার সবচেয়ে বেশি। প্রতি একজন মহিলায় শিশু জন্মের হার ৩.‌৪। লকডাউনের কারণে দীর্ঘদিন বাড়ির বাইরে থাকা পরিযায়ী শ্রমিকরা ঘরে ফিরছেন। আর তাই অহেতুক জনসংখ্যা বৃদ্ধি রুখতেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিহার সরকারের স্বাস্থ্য দফতর। বিহার স্বাস্থ্যমন্ত্রক সূত্রে বলা হয়েছে, প্রতিবছর মার্চ এবং নভেম্বরে হোলি, দিওয়ালি এবং ছটের সময় প্রচুর পরিযায়ী শ্রমিক বাড়ি ফেরেন। তার ৯-১০ মাস পরেই শিশুদের জন্মের হার অনেকটাই বেড়ে যায়। আবার পরবর্তীতে তা কমে যায়।

‌‌

Related Articles

Back to top button
Close