fbpx
কলকাতাগুরুত্বপূর্ণদেশপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য বিল আনুক কেন্দ্র: ইয়েচুরি

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ‘লকডাউনে আটকে পড়া শ্রমিকদের ঘরে পৌঁছে দেওয়ার এবং খাওয়ানোর জন্য কেন্দ্রের এক্ষুনি একটি বিল উত্থাপন করা উচিত।’ রবিবার এই দাবি করেন সীতারাম ইয়েচুরি।
করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় কেন্দ্রীয় সরকার গত পাঁচ দিন ধরে একের পর এক যে অর্থনৈতিক ঘোষণা করছে, তাকে সংখ্যার ‘জাগলিং’ বলে তীব্র ভাষায় আক্রমণ শানালেন সিপিএম সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি।

যে সমস্ত মানুষ লকডাউনে বাড়ি ফিরতে গিয়ে পথেই প্রাণ হারাচ্ছেন তার জন্য কেন্দ্রীয় সরকারকে দায়ী করে রবিবার এক বার্তায় ইয়েচুরি বলেন, ‘গত ৫০ দিন ধরে আমাদের লোকেরা (আটকে পড়া শ্রমিক) তাঁদের ঘরে পৌঁছনোর জন্য হাঁটাহাঁটি করে মর্মান্তিক মৃত্যু ও দুর্দশার মুখে পড়ছেন। এর জন্য মোদি সরকার এককভাবে দায়ী। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি রাজ্যগুলির সঙ্গে পরামর্শ না করেই হঠাৎ করে এক অপরিকল্পিত লকডাউন ঘোষণা করেছিলেন। আর এখন তিনি এবং তাঁর সরকার সেই পরিকল্পনাহীনতার বোঝা রাজ্যগুলির উপর ঠেলে দিতে চাইছেন।

এই ক’দিনে কেন্দ্রীয় সরকার যা ঘোষণা করেছে তাতে করোনায় সব থেকে ক্ষতিগ্রস্ত শ্রেণির কোনও উপকার হবে না, হবে পুঁজিপতিদের। এই অভিযোগ তুলে ইয়েচুরি বলেন, ‘করোনা পরিস্থিতিকে কাজে লাগিয়ে বিদেশি ও দেশীয় কর্পোরেটদের কাছে লুটপাটের আরও সুযোগ করে দিয়েছে মোদির সরকার। কিন্তু করোনা সংকট মোকাবিলা বা সাধারণ মানুষের স্বার্থ রক্ষা করার জন্য সরকার কোনও গুরুত্বপূর্ণ বা ঝুঁকিপূর্ণ পদক্ষেপ গ্রহণ করতে পেরেছে কি?’

কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে কটাক্ষ ছুড়ে দিয়ে ইয়েচুরি বলেন, ‘গত ৫ দিন ধরে সরকার শুধু সংখ্যার জাগলিন করছে, কাজের কাজ কিছুই হচ্ছে না। এই ঘোষণার সঙ্গে সংকটে থাকা দরিদ্র, ক্ষুধার্ত মানুষগুলোকে সাহায্য করার কোনও সম্পর্ক নেই। আসলে মোদি সরকার এঁদের প্রতি অন্ধ। কিন্তু চারপাশের অবস্থা তো বুঝিয়ে দিচ্ছে কোনটা বেশি অগ্রাধিকার যোগ্য।’

এর পাশাপাশি রাজ্যগুলিকে আর্থিক সাহায্য করার পরিবর্তে কেন্দ্রীয় সরকার যে ঋণ দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছে, তাকেও কটাক্ষ করেছেন ইয়েচুরি।

Related Articles

Back to top button
Close