fbpx
কলকাতাহেডলাইন

পাখির চোখ একুশ, ডিসেম্বরের গোড়ায় বাংলায় আসতে পারেন নাড্ডা

শরণানন্দ দাস, কলকাতা: কাউন্ট ডাউন শুরু হয়ে গিয়েছে একুশের নির্বাচনের। আর এই নির্বাচনে বাংলাকে টার্গেট করেছে বিজেপি। আর এই লক্ষ্যে নির্বাচনের আগে বিজেপির একাধিক কেন্দ্রীয় নেতামন্ত্রীর বঙ্গ সফরে আসার কথা। সূত্রের খবর, ডিসেম্বরের শুরুতে দু’দিনের সফরে রাজ্যে আসতে পারেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা। রাজ্য বিজেপি সূত্রে খবর, আগামী ৮ ও ৯ ডিসেম্বর তাঁর রাজ্যে আসার কথা রয়েছে। জেলাতে সাংগঠনিক বৈঠকের পাশাপাশি কলকাতায় নাড্ডা একটি সভা করতে পারেন। যদিও তাঁর সফরসূচি এখনও চূড়ান্ত হয়নি।

প্রসঙ্গত চলতি মাসে বাংলায় আসার কথা ছিল জেপি নাড্ডার। তাঁর নেতৃত্বে উত্তরকন্যা অভিযানের কথাও শোনা গিয়েছিল। তবে সেই সফর বাতিল হয়ে যায়। পরিবর্তে রাজ্যে আসেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ । দু’দিনের সফরে বাঁকুড়াতেও যান তিনি। আদিবাসী বাড়িতে মধ্যাহ্ন ভোজ পারেন।সেখানে বিরসা মুন্ডার মূর্তিতে মাল্যদান করেন তিনি। অমিত শাহের এই সফর ঘিরে রাজনৈতিক বিতর্ক তৈরি করেছে তৃণমূল। পাশাপাশি বিজেপির পাঁচ কেন্দ্রীয় নেতাকে বাংলায় বিশেষ দায়িত্ব দিয়ে পাঠানোয় তৃণমূল কংগ্রেস ‘ বহিরাগত’ ইস্যুতে বিজেপিকে বিঁধছে। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় পর্যন্ত বলেছেন ‘ বাইরের লোকদের’ ভয় পাওয়ার কারণ নেই। পাল্টা তোপ দেখেছেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

আরও পড়ুন: অগ্নিমিত্রার মন্তব্য ঘিরে ফেসবুক পোস্টে ক্ষোভ উগরে দিলেন বৈশাখী, ‘বিরক্ত’ শোভনও

তিনি প্রশ্ন তুলেছেন, ‘ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ বাইরের লোক আর তৃণমূলের দুই প্রাক্তন রাজ্যসভার সাংসদ কেডি সিং, সিমির প্রতিষ্ঠাতা হাসান ইমরান যিনি আদতে বাংলাদেশের তাঁরা বুঝি বহিরাগত নন। শাহরুখ খান বুঝি বাংলার তাই এই রাজ্যের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাস্যাডার। সদ্য প্রয়াত সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় বুঝি বাঙালি ছিলেন না।’ এই রাজনৈতিক রাজনৈতিক চাপান উতোরের মধ্যেই জে পি নাড্ডার সফরের কথা শোনা যাচ্ছে। বিজেপি একটা স্পষ্ট বার্তা দিতে চাইছে, তৃণমূল যতই ‘বহিরাগত’ ইস্যু তৈরি করুক , কেন্দ্রীয় নেতা মন্ত্রীদের বাংলায় আসা অব্যাহত থাকবে।

Related Articles

Back to top button
Close