fbpx
পশ্চিমবঙ্গ

একটু অন্যভাবে জন্মদিন পালন সাংবাদিক জাহাঙ্গীরের

ভাস্করব্রত পতি, তমলুক: হ্যাঁ, এভাবেও জন্মদিন পালন করা যায়। কেক কাটা হবে না। বেলুন বাঁধা হবে না। মোমবাতি জ্বালানো হবে না। খাওয়া দাওয়া হবে না। তালি দিয়ে কেউ বলবেও না ‘হ্যাপি বার্থ ডে টু ইউ’!

তবে কিসের জন্মদিন পালন? তবুও আজ ১৭ মে জন্মদিন পালন হল সাংবাদিক ও সমাজসেবী জাহাঙ্গীর বাদশার। তিনি কোনো রাজনৈতিক নেতা নন। সাধারণ মানুষের পাশে থাকতে ভালোবাসেন। তিনি পূর্ব মেদিনীপুর জেলার অন্যতম জনপ্রিয় টেলিভিশন সাংবাদিক ও ভারতের বিভিন্ন প্রান্তে ঘুরে খবর করে বেড়িয়েছেন। তিনিই জন্মদিন পালন করবেন ৬০ জন দুঃস্থ অসহায় ব্যক্তিকে এবং ৩০ টি পথ কুকুরকে রান্না করা খাওয়ার খাইয়ে! অভূতপূর্ব এই উদ্যোগ তিনি নিয়েছেন এবার লক ডাউনের ঘরবন্দী অবস্থায়। এ এক বিরলতম জন্মদিন পালন।

শেষবার কবে নিজের জন্মদিন পালন করেছিলেন জানা নেই জাহাঙ্গীরের। তাঁর কথায়, কোনোদিনই ঘটা করে জন্মদিন পালনের রেওয়াজ নেই তাঁর। দুই মেয়ের জন্মদিন পালন করা হয়। কিন্তু নিজের হয়না।

কর্মব্যস্ত জীবন। ইতিউতি নিত্যদিন ছোটাছুটি আর খবর সংগ্রহের তাড়া। ফুরসতই জোটেনা জন্মদিন পালনের। তবে এবার করবেন। একটু অন্যভাবে, অন্য রূপে, অন্য চিন্তা ভাবনাকে জারিয়ে। তাঁর এই ভাবনাকে স্যালুট জানিয়েছেন পূর্ব মেদিনীপুর জেলা পরিষদের খাদ্য কর্মাধ্যক্ষ সিরাজ খান, কোলাঘাট থানার ওসি রাজকুমার দেবনাথ সহ এলাকার বিশিষ্ট মানুষজন।

সম্প্রতি ‘অল ইণ্ডিয়া হিউম্যান রাইটস’ থেকে সমাজসেবার জন্য পেয়েছেন দুর্লভ সম্মান। লক ডাউন চলাকালীন মেছেদা সংলগ্ন এলাকায় ভবঘুরেদের লাগাতর খাইয়ে যাচ্ছে লক ডাউন উপলক্ষ্যে নব গঠিত সংগঠন’ আমরা বন্ধু’। বিশাল সাড়া মিলছে একাজে। ‘আমরা বন্ধু’ দলের সদস্য শান্তনু পাত্র বলেন, ‘জাহাঙ্গীর বাদশা একটা ব্র্যান্ড নেম। আর উনি উদার মন নিয়ে সবসময় মানুষের পাশে থাকেন। উনি আরো বেশি বেশি করে অসহায় মানুষের পাশে থাকুন’।

শুধু সাংবাদিকতা নয়, সমাজসেবার মহান ব্রত তিনি নিয়েছেন অচিরেই। এলাকার দুঃস্থদের নানা ত্রাণসামগ্রী বিলিবন্টনে তিনি দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন।

জাহাঙ্গীরের এই গোটা কর্মকাণ্ডের সঙ্গে রয়েছেন তার স্ত্রী গার্গীও।

Related Articles

Back to top button
Close