fbpx
অন্যান্যপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

সাধারণ মানুষের পাশে বিশ্ব বঙ্গ সাহিত্য ও সংস্কৃতি সম্মেলন

নিজস্ব প্রতিবেদন, কলকাতা: বহুদিন ধরে সমাজে পিছিয়ে পড়া বন্ধ সংস্কৃতি বিভিন্ন বিষয়গুলোয় যেমন মন, টুসু, ভাদু, গম্ভীরা, ছৌ,  ঝুমুর, গাজন সহ নানা ধরনের বাংলার হারিয়ে যাওয়া উজ্জ্বল সংস্কৃতিগুলি মানুষের সামনে তুলে ধরার চেষ্টা করা ছড়া বিলুপ্তপ্রায় বঙ্গ সংস্কৃতি পুনঃউদ্ধারের কাজ করতে দেখা গিয়েছে বিশ্ব বঙ্গ সাহিত্যও সংস্কিৃত সম্মেলনকে। সাহিত্য ও সংস্কৃতির সঙ্গে সমাজ সেবার কাজে বেশ সুনাম করে চলেছে এই বিশ্ব সংগঠন।

করোনার আবহে লকডাউনে সমাজ সেবায় নজির সৃষ্টি করে বহু মানুষের প্রশংসা অর্জন করেছে বিশ্ব বঙ্গ সম্মেলন। প্রায় পাঁচ মাস ধরে পথ কুকুরের পাশাপাশি মানিকতলা স্থিত সংগঠনের প্রধান কার্যালয়ের আশপাশে বসবাসকারী অসংখ্য দরিদ্র মানুষের হাতে চাল, ডাল, তেল, আলু, সাবান, মাস্ক ইত্যাদি দিয়ে এসেছে এই সংগঠন। ঠিক সে রকমভাবে গত ৬ সেপ্টেম্বর সুন্দরবনের জামতলা অঞ্চলে বৈরাগী পুলে ধমুকেতু ক্লাবের সহয়োগিতায় প্রায় একহাজারের বেশি মানুষের হাতে নতুন জামাকাপড়, খাবার সামগ্রী, মাস্ক বিতরণ করে এক অসাধারণ সামাজিক কাজের নিদর্শন সৃষ্টি করেছে।

সংগঠনের প্রধান সম্পাদক রাধাকান্ত সরকার জানিযেছেন, আগামী ২৭ সেপ্টেম্বর ও ১ অক্টোবর আরও দুটি স্থানে আসন্ন দুর্গাপুজো উপলক্ষে গরীব  অসহায় মানুষের হাতে পোশাক ও শুকনো খাবার তুলে দেওয়ার পরিকল্পনা নিয়েছে। এধরনের কাজে সকলের সহযোগিতা ও সাহায্য এবং আশীর্বাদ কামনা করেছেন।

আরও পড়ুন:সীমান্তে নতুন করে ফের অশান্তি, অস্বস্তিতে চিন

সুন্দরবনে ত্রাণ দিতে সর্বোতভাবে সাহায্য সহযোগিতার হাত বাড়িয়েছেন গৌতম ঘোষ,  ঝর্না ঘোষ, রবীন্দ্রনাথ দাস, আলপনা দাস, সৌভিক দাস,  দীপ ঘোষ, বিকাশ সরকার, সীমা ঘোষ, ছবি সরকার, চিরশ্রী বসাক, সীমা বসাক, চন্দন বসাক, সঞ্জয় পান্তু, রত্না মুখার্জি, কুমকুম সেনগুপ্ত, কবিতা নাথ, রূপশ্রী রায়, কেয়া বসাক, রামকৃষ্ণ হালদার, নিরঞ্জন ভৌমিক, সঞ্চয়িতা রায়, বিশ্বজিত সরকার, চন্দন মজুমদার, অসিত সাহা, কৃষ্ণা সাহা, ছন্দিতা রায়, ড. মহুয়া মুখোপাধ্যায়, সুপ্রতিক সিনহা, তাপস প্রহরাজ, রূপশ্রী দাস, ড. সমীর মণ্ডল, বিমল বসাক, ননীগোপাল ঘোষ,  পূর্ণিমা বসাক সহ অনেক সুহৃয় ব্যক্তিবর্গ। সর্বোপরি প্রশংসার দাবি রাখেন সংগঠনের সাংস্কৃতিক সম্পাদিকা শিবানীদাস। সাহিত্যও সমাজসেবা মূলক কাজে বিশ্ব সম্মেলন সকলের আশীর্বাদ ও ভালোবাসা নিয়ে মাথা উঁচু করে এগিয়ে চলেছে এবং আগামীতেও সকলের মনে এক উজ্জ্বল স্থান করে বিরাজমান হবে বলে সংগঠনের প্রাণপুরুষ রাধাকান্ত সরকারের দৃঢ়প্রত্যয়।

Related Articles

Back to top button
Close