fbpx
কলকাতাহেডলাইন

‘পুলিশ দিয়ে, কেস দিয়ে বিজেপিকে রোখা যাবে না’: দিলীপ ঘোষ

শরণানন্দ দাস, কলকাতা : হেমতাবাদের নিহত বিজেপি বিধায়ক দেবেন্দ্রনাথ রায়ের স্মরণসভায় যোগ দেওয়ায় দিলীপ ঘোষের বিরুদ্ধে এফআইআর করা হয়েছে। বুধবার এ বিষয়ে প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে বিজেপি রাজ্য সভাপতির হুঙ্কার,’ পুলিশ দিয়ে, কেস দিয়ে বিজেপিকে রোখা যাবে না।’  গতমাসে হেমতাবাদের বিজেপি বিধায়কের রহস্যজনক মৃত্যুর পর সোমবার প্রথম তাঁর বাড়িতে যান দিলীপ ঘোষ। তারপর কালিবাড়ির সামনে স্মরণসভায় যোগ দেন। অভিযোগ ওই স্মরণসভায় করোনা বিধি মানা হয়নি। রায়গঞ্জ থানার আইসি সুরজ থাপা জেলা পুলিশ দফতরে দিলীপ ঘোষ ও বিজেপি কর্মীদের বিরুদ্ধে মহামারী আইনে অভিযোগ দায়ের করেন। সূত্রের খবর, ১০০০ বিজেপি কর্মীর বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হয়েছে। অভিযোগ খতিয়ে দেখে মামলা দায়ের করা হবে বলে জানিয়েছেন জেলার পুলিশ সুপার সুমিত কুমার।

এই প্রসঙ্গে মেদিনীপুরের সাংসদ বলেন, ‘প্রতি হিংসা পরায়ণ সরকার। নৈতিকভাবে হেরে গিয়ে সন্ত্রাসের রাস্তায় হাঁটছেন দিদি। নিজে লোকলস্কর নিয়ে করোনা বিধি উড়িয়ে রাস্তায় হাঁটবেন। আর বিজেপির একটা শ্রদ্ধা জানানোর অনুষ্ঠান আয়োজনের অধিকার নেই। এর আগে মেদিনীপুরের দাঁতনে আমাদের নিহত কর্মীকে শ্রদ্ধা জানাতে গিয়েছিলাম। তখনও আমার বিরুদ্ধে কেস দেওয়া হয়েছিল। পরিস্কার বলছি এফআইআর করে, কেস দিয়ে বিজেপিকে রোখা যাবে না।’

আরও পড়ুন: উচ্চ প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ মামলায় দ্রুত শুনানির আর্জি জানিয়ে হাইকোর্টের দ্বারস্থ এসএসসি

এদিন তিনি আরও বলেন, ‘:আমি যাবো আর আমার বিরুদ্ধে এফআইআর হবে না এটা আবার হয় নাকি। পুলিশকে কিছু কাজতো দিতে হবে। একজন বিধায়ক খুন হলেন, ঠিকভাবে তদন্ত করা হলো না। তাঁকে শ্রদ্ধাঞ্জলি জানাতে গিয়েছি আর আমার বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হলো। বিজেপি যেখানেই যাচ্ছে লকডাউন লাগিয়ে দেওয়া হচ্ছে।’ এইসঙ্গে তাঁর অভিযোগ , একসঙ্গে ১০০০ কর্মীর বিরুদ্ধে এফআইআর, গণতন্ত্রে এমনটা হয়না। এদিন সকাল ১১টা থেকে বিকেল ৪ টে পর্যন্ত কোচবিহারের সুকান্ত ভবন কমিউনিটি হলে জেলার কার্যকর্তাদের সঙ্গে সাংগঠনিক বৈঠক করেন। সন্ধ্যায় : গ্রেটার কোচবিহার পিপলস অ্যাসোসিয়েশনের’ সদস্যদের সঙ্গেও বৈঠক করেন।

Related Articles

Back to top button
Close