fbpx
গুরুত্বপূর্ণপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

বহিরাগত তকমা লাগিয়ে বিজেপিকে এরাজ্যে দমিয়ে রাখা যাবেনা : কাশেম আলী

শ্যামল কান্তি বিশ্বাস : অমিত শাহ, কৈলাস বিজয় বর্গী,অরবিন্দ মেনন রা ভারতীয় হয়েও যদি বহিরাগত হয়,তবে যুবরাজের স্ত্রীর ক্ষেত্রে কি বলা হবে? গতকাল আমডাঙ্গা বিধানসভা এলাকার কাশেমপুরে বিজেপির কর্মী বৈঠকে রাজ্যের শাসক দলের উদ্দেশ্যে এই প্রশ্নছুড়ে দেন, বিজেপি সংখ্যালঘু সেলের রাজ্য সহসভাপতি কাশেম আলী। সাংগঠনিক বৈঠক থেকে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে একের পর এক আক্রমনে সোচ্চার হন কাশেম আলী। তিনি বলেন, রাজ্যের শাসক তৃনমূলের প্রধান প্রতিপক্ষ আজ বিজেপি কে আক্রমণের কোন ইস্যু না পেয়ে, এরাজ্যে দায়িত্ব প্রাপ্ত বিজেপির সর্বভারতীয় নেতাদের গায়ে বহিরাগত তকমা লাগিয়ে বাজার গরমের বৃথা চেষ্টায় নেমেছে এ রাজ্যের শাসক দল তৃনমূল কংগ্রেস। তৃনমূলের এহেন উদ্দেশ্য কখনো ই সফল হবে না।

 

সীমাহীন দূর্নীতিতে জর্জরিত একটি আঞ্চলিক রাজনৈতিক দল, যে দলের একের পর এক নেতা নেত্রী,দল ত্যাগ করে বেরিয়ে যাচ্ছে,তারা এখন দিশেহারা হয়ে আবোলতাবোল বকছে, বাংলার মানুষ এদের প্ররোচনার ফাঁদে পা দেবেন না। বিগত সাড়ে নয় বছরের অপশাসনে বাংলার জনগন বুঝে গেছে তৃণমূল কংগ্রেস দলটি রাজ্যের উন্নয়নে গঠনমুলক কোন স্থায়ী দিশা দেখাতে পারবে না।ভাওতা, প্রতারনা সহ তুষ্টি করণের রাজনীতি করে সাময়িক কামানো যায় ঠিকই কিন্তু জাতি তথা রাজ্যের কোন উন্নয়ন একদমই সম্ভব নয়,ফলে তৃনমূলের কোন কথায় আর রাজ্যবাসী গুরুত্ব দিতে নারাজ। বিজেপি সংখ্যালঘু সেলের রাজ্য সহসভাপতি কাশেম আলীর আমডাঙ্গা বিধানসভা ভিত্তিক কাশেমপুরে দলের কর্মী সভায় ভিড় ছিল চোখে পড়ার মতো।সভা শেষে কাশেম আলী নিজেই দলের নির্বাচনী প্রচার উপলক্ষে দেওয়াল লিখনে হাত লাগালেন।

Related Articles

Back to top button
Close