fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

করোনার সুযোগ নিয়ে বাংলায় আঘাতে উদ্যোত বিজেপি: উদয়ন

নিজস্ব সংবাদদাতা দিনহাটা: করোনাভাইরাস এর পাশাপাশি আমফানে এ রাজ্যে যে ক্ষতি হয়েছে তা যেন মরার উপর খাড়ার ঘা। আর এই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে বিজেপি নেতারা ও কেন্দ্রীয় সরকারের কোনও কোনও মন্ত্রী বাংলার উপর আঘাত আনার চেষ্টা করছে। শুক্রবার দিনহাটা পুরসভার কনফারেন্স হলে সাংবাদিক বৈঠক করে করোনা নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারকে তীব্র ভাষায় আক্রমন করেন দিনহাটা পুরসভার প্রশাসক বিধায়ক উদয়ন গুহ।

পাশাপাশি করোনা মোকাবিলায় সবচাইতে পিছিয়ে পড়া দিনহাটা যৌনপল্লীর মহিলাদের প্রশংসাও করেন তিনি। দিনহাটার যৌন পল্লীর বাসিন্দাদের এই রোগ প্রতিরোধে তারা যেভাবে লড়াই চালাচ্ছে তাকে স‍্যলুট জানান প্রশাসক।

এদিন তিনি বলেন লকডাউনের শুরুতেই পুরসভা ও স্বাস্থ্য দফতরের পক্ষ থেকে পল্লীতে গিয়ে মহিলাদের কাছে আবেদন জানানো হয়েছিল মানুষের সংস্পর্শে আসলেই এই রোগ ছড়িয়ে পড়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে। তাই তারা যাতে কোনভাবেই বহিরাগতদের এলাকায় প্রবেশ বন্ধ করেন। সেইমতো এলাকার বাসিন্দারা যৌনপল্লীর চার দিকের রাস্তা বাস দিয়ে আটকে দেন। এদিন সাংবাদিক বৈঠকে প্রশাসক উদয়ন গুহ বলেন অনেকেই বাইরে থেকে জোর করে ওই এলাকায় প্রবেশ করার চেষ্টা করছে। এলাকার বাসিন্দারাই তাকে ফোন করে পুলিশ পাঠানোর আবেদন জানান। কঠিন লড়াইয়ের তাদের সমস্যা হলেও যেভাবে তারা এই যুদ্ধে জয়ী হতে লড়াই করে যাচ্ছে এভাবে সকলেই সচেতন হলে এই রোগ প্রতিরোধ আরও অনেকটাই সহজ হয়ে উঠত।

পৌরসভার পক্ষ থেকেও করোনা মোকাবিলায় বাড়ি বাড়ি স্যানিটাইজ করা যেমন হচ্ছে তেমনি প্রথমদিকে শহরে ঢোকার মুখে গাড়ির চাকাগুলো কেউ সানরাইজ করা হয়। দিনহাটার বাজারে ভিড় কমাবার জন্য কার্ড সিস্টেম চালু করা হয়েছে। এছাড়াও শহরে যানবাহন নিয়ন্ত্রণে ও সম্ভব হয়েছে সকলের সহযোগিতায়। এমনটাই জানিয়েছেন পুর প্রশাসক।

বিরোধীদের নানা অভিযোগের উত্তরে তিনি বলেন বিধায়ক হিসেবে তার কাছে দিনহাটা শহর ও গ্রাম সব সমান। তাই তার বিধানসভা এলাকার সব কয়টি গ্রাম পঞ্চায়েতে তিনি সাধ্যমতো সহায়তা করেছেন। সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন অসংগঠিত শ্রমিকদের জন্য।

Related Articles

Back to top button
Close