fbpx
গুরুত্বপূর্ণদেশহেডলাইন

বিজেপির ভয়! গুজরাটের ৬৫ বিধায়ককে হোটেলে সরাল কংগ্রেস

নিজস্ব প্রতিনিধি, আমেদাবাদ : করোনা পরিস্থিতির মধ্যেই জারি অপারেশন কমল। আসন্ন রাজ্যসভা নির্বাচনের আগে গুজরাটে কংগ্রেসকে দুর্বল করতে নীরবে প্রক্রিয়া শুরু করেছে তারা। গত মার্চ থেকে জুন মাসের প্রথম সপ্তাহের মধ্যেই গুজরাটে কংগ্রেসের আটজন বিধায়ক পদত্যাগ করেছেন। আরও কয়েকজন বিধায়কের পদত্যাগের জল্পনা তুঙ্গে। এই পরিস্থিতিতে ঘরে বাঁচাতে মরিয়া হয়ে উঠেছে কংগ্রেস। রবিবার  নিজেদের দলের অবশিষ্ট ৬৫ বিধায়ককে সরিয়ে ফেলল হোটেলে। কংগ্রেস সূত্রের জানা গিয়েছে, করোনা আবহে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার জন্য ভদোদার, রাজকোট এবং রাজস্থানের তিনটি রিসর্টে পৃথক পৃথকভাবে ৬৫ জন বিধায়কদের রাখা হয়েছে।
সামনেই গুজরাটের চার রাজ্যসভার আসনে নির্বাচন। গুজরাটে মোট বিধানসভা আসন সংখ্যা ১৮২। তার মধ্যে ২ টি আসনে ফলাফল নিয়ে সমস্যা থাকায় তা অমীমাংসিত অবস্থায় আছে।সেই হিসাবে রাজ্যসভার এক একটি আসনের জন্য প্রয়োজন ৩৫ জন বিধায়কের ভোট। কংগ্রেসের বিধায়ক সংখ্যা ছিল ৭৩। অর্থাৎ রাজ্যসভায় ২ টি আসন তাদের পাকা ছিল। কিন্তু অজানা কারণে মার্চ মাসে একসঙ্গে ৫ জন বিধায়ক পদত্যাগ করেন। সংখ্যাটা কমে দাঁড়ায় ৬৭। তখনও কংগ্রেস নেতৃত্ব নিশ্চিন্ত ছিলেন। কারণ আর একটি ভোট বাকি বিরোধীদের থেকে সমর্থন হিসাবে জোগাড় করতে পারবেন। কিন্তু গত সপ্তাহে পরপর ৩ জন বিধায়ক পদত্যাগ করায় চাপে পড়ে গেছেন কংগ্রেস নেতৃত্ব। এই মুহূর্তে তাদের বিধায়ক সংখ্যা ৬৫। বাকি বিরোধী শিবিরের মধ্যে  বিটিপি ২, এনসিপি ১ ও একটি নির্দল। এখন এই বিরোধীদের সমর্থনের আশায় ৬৫ জন বিধায়ককে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে রাজ্যসভার দু’টি আসনে জেতার স্বপ্ন দেখছে কংগ্রেস।
বিধায়কদের এই পদত্যাগের বিষয়ে বিজেপির দিকে আঙুল তুলে কংগ্রেস অভিযোগ, কোটি কোটি টাকার লোভ দেখিয়ে বিধায়কদের ভাঙিয়ে রাজ্যসভার নির্বাচন নিজেদের আসন বাড়াতে চাইছে বিজেপি। এ প্রসঙ্গে কংগ্রেস নেতা অর্জুন মোতয়াদিয়ার বলেন, আমাদের অনেক বিধায়ক আছেন, যাঁরা একসঙ্গে ৫০ লক্ষ টাকা দেখেননি। এখন রাজ্যসভা নির্বাচনে কংগ্রেসের প্রাপ্য আসন সংখ্যা কমাতে তাঁদের ২০ কোটি টাকার লোভ দেখানো হচ্ছে।

Related Articles

Back to top button
Close