fbpx
কলকাতাহেডলাইন

অনুপম বিতর্কে ,’ভেবে মন্তব্য করা উচিত’, প্রতিক্রিয়া মুকুলের

শরণানন্দ দাস, কলকাতা: মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রতি অবমাননাকর মন্তব্যের জেরে বিজেপির নয়া কেন্দ্রীয় সম্পাদক অনুপম হাজরার বিরুদ্ধে তৃণমূল কংগ্রেসের উদ্বাস্তু সেল‌ এফআইআর দায়ের করলো। এ প্রসঙ্গে প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে বিজেপির সর্বভারতীয় সহ সভাপতি মুকুল রায় বলেন, ‘ দায়িত্ব পূর্ণ পদে থেকে ভেবেচিন্তে মন্তব্য করা উচিত।’

ঘটনা হল রবিবার দক্ষিণ ২৪ পরগনার বারুইপুরের বিজেপির সাংগঠনিক বৈঠকের পর সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তর দিতে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রী সম্পর্কে কিছু মন্তব্য করেন। তৃণমূল কংগ্রেসের উদ্বাস্তু সেল সোমবার শিলিগুড়ি থানায় মুখ্যমন্ত্রীকে করা মন্তব্য আপত্তিকর এই অভিযোগে অনুপম হাজরার বিরুদ্ধে এফআইআর করে। তাঁরা হুমকি দিয়েছেন অনুপম হাজরাকে গ্রেফতার না করলে রাজ্যের প্রত্যেক থানায় বিজেপির এই কেন্দ্রীয় নেতার বিরুদ্ধে এফআইআর করা হবে। অনুপম হাজরাও পাল্টা হুমকি দিয়েছেন, ‘ আমার বিরুদ্ধে যদি একটা এফআইআর দায়ের করা হয়, তাহলে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যতগুলো লাশ কেরোসিন দিয়ে পুড়িয়েছেন ততগুলো এফআইআর তাঁর বিরুদ্ধে করা হবে।’

এদিন বিজেপির সর্বভারতীয় সহ সভাপতি মুকুল রায়কে কর্মী, সমর্থকরা পুষ্প স্তবক দিয়ে বরণ করে নেন। সল্টলেকের গেস্টহাউসে এই অনুষ্ঠানের পর সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন তিনি। সেখানেই অনুপমের প্রসঙ্গে প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, ‘ যাঁরা দায়িত্ব পূর্ণ লোক, তাঁদের কোনোও মন্তব্য করার আগে সতর্ক থাকা উচিত।’ রাজ্যের তথ্যাভিজ্ঞ মহল মনে করছে, এই মন্তব্যের মধ্য দিয়ে অনুজ প্রতিমন্ত্রী নেতাকে সতর্ক করলেন মুকুল। তা হলো অহেতুক তৃণমূলকে সুযোগ দেওয়ার দরকার কী?

আরও পড়ুন: করোনার জন্য পিছনো যাবে না পরীক্ষা, সুপ্রিম কোর্টে জানাল ইউপিএসসি

এদিনও তিনি রাহুল সিনহার ক্ষোভ প্রশমনের চেষ্টা করেন। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘রাহুল সিনহার দলের প্রতি অবদান এক লাইনে বলা সম্ভব নয়। রাহুল বিজেপির দীর্ঘদিনের সৈনিক, রাজ্য সভাপতি ছিলেন, কেন্দ্রীয় সম্পাদক ছিলেন। দলের বহু গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব সামলেছেন।’তিনি জানিয়েছেন , রাজ্যের সাংগঠনিক বিষয়ে রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ ও অন্যান্য রাজ্য নেতাদের সঙ্গে কথা হয়েছে। একইসঙ্গে দল তাঁকে যে গুরু দায়িত্ব দিয়েছে, জীবনের শেষ রক্তবিন্দু দিয়ে তা পালন করার প্রতিশ্রুতি দিলেন।

Related Articles

Back to top button
Close