fbpx
গুরুত্বপূর্ণপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

তৃণমূল খুচরো দল, আজকে আছে কালকে নেই: সায়ন্তন

জয়দেব লাহা, দুর্গাপুর: ‘তৃণমূল খুচরো দল। আজকে আছে কালকে নেই। আমারা সর্ব ভারতীয় দল। আমাদের নেতৃত্ব আসবেন। আমাদের রাজ্য থেকেও যান। লোকসভা নির্বাচনে বাংলাদেশের নায়ক নায়িকার প্রচারে আসলেন। তারা কি বহিরাগত নন? রবিবার দুর্গাপুরে চা পেয়ে চর্চায় যোগ দিয়ে রাজ্যের শাসকদল তৃণমূলকে কটাক্ষ করে এভাবে প্রশ্ন ছুঁড়ে বিঁধলেন বিজেপির রাজ্য সাধারন সম্পাদক সায়ন্তন বসু। একই সঙ্গে ইনামূলের ল্যাবরেটারিতে অনুব্রত মন্ডল ভ্যাকসিন তৈরী হচ্ছে বলে জানিয়েছেন। যা প্রয়োগের পর অনুব্রতর মতো কয়েক’শ ভাইরাস খুঁজে পাওয়া যাবে না বলে মন্তব্য করেন তিনি।

উল্লেখ্য, আগামী বিধানসভা নির্বাচনের রণকৌশল তৈরী করতে কয়েকদিন আগে রাজ্যে বিজেপির পাঁচ জোনের পাঁচ পর্যবেক্ষক এক সঙ্গে পাঁচ জায়গায় বৈঠক করেন। আর ওই পাঁচ পর্যবেক্ষককে বহিরাগত মাস্টারমশাই বলে কটাক্ষ করে তৃণমূল। আর তা নিয়ে বিস্তর জলঘোলা শুরু হয়েছে রাজনৈতিক মহলে। রবিবার দুর্গাপুর মায়াবাজারে চা’য়ে পে চর্চায় যোগ দেন বিজেপির রাজ্য সাধারন সম্পাদক সায়ন্তন বসু।

তিনি বলেন,”তৃণমূল খুচরো দল। আজকে আছে কালকে নেই। আমারা সর্ব ভারতীয় দল। আমাদের নেতৃত্ব আসবেন। আমাদের রাজ্য থেকেও যান। সাড়ে পাঁচ’শ কোটি টাকা দিয়ে বাইরে থেকে লোক নিয়ে এসেছেন। তৃণমূল দলটাকে বাঁচানোর জন্য। সেই প্রশান্ত কিশোর কি পশ্চিমবঙ্গের লোক?” তিনি আরও প্রশ্ন ছুঁড়ে বলেন,”লোকসভা নির্বাচনে বাংলাদেশের নায়ক নায়িকার প্রচারে আসলেন। তারা কি বহিরাগত নন? বাংলাদেশের লোক, হুজির লোক, জামাতের লোক বহিরাগত নয়। রোহিঙ্গার বহিরাগত নয়। কিন্তু কৈলাশ বিজয়বর্গীয়, অরবিন্দ মেনন, অমিত শাহ্, নরেন্দ্র মোদী, জেপি নাড্ডা বহিরাগত।” শুভেন্দু অধিকারীর বিজেপিতে যোগদানের সম্ভাবনার প্রশ্নে সায়ন্তন বসু বলেন,” মুশল পর্ব চলছে, মুশল পর্ব চলবে। মুশল পর্ব শেষ হওয়ার পর কতজন অক্ষত থাকে, সেটা আমাদের দেখতে হবে। সন্দেহ আছে আদৌ অক্ষত থাকবেন কিনা।” তৃণমূলকে কটাক্ষ করে তিনি আরও বলেন,” কালিঘাট প্রাইভেট লিমিটেড দু’জন ব্যাক্তির দলে পরিনত হয়েছে।

Related Articles

Back to top button
Close