fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

সৌজন্য সাক্ষাৎ করতে গিয়ে তৃণমূলের হামলার মুখে পড়লেন বিজেপি নেতারা!

নিজস্ব প্রতিনিধি, দিনহাটা :   সৌজন্য সাক্ষাৎ করতে গিয়ে তৃণমূলের হামলার  মুখে পড়ার অভিযোগ উঠল বিজেপি নেতাদের । বৃহস্পতিবার দুপুরে দিনহাটা শহরের মদনমোহন বাড়ি এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। এসএফআই নেতার  বাড়িতে বাড়িতে হামলার ও তার মায়ের অসুস্থতার  কথা শুনতে সেখানে  সৌজন্য সাক্ষাৎ করতে যান বিজেপির কোচবিহার জেলা সহ সভাপতি প্রাক্তন বিধায়ক অশোক মন্ডল ,  রাজ্য কমিটির সদস্য দীপ্তিমান সেনগুপ্ত,  বিজেপি কর্মী রকি রায় চৌধুরী, পিন্টু মোদক সহ আরও কয়েকজন বিজেপি কর্মী সমর্থকরা।

বিজেপি কর্মীদের অভিযোগ, ঠিক সেই সময়  দিনহাটা ১ নং ওয়ার্ডের প্রাক্তন কাউন্সিলর বিধায়ক উদয়ন গুহ ঘনিষ্ট   জয়দ্বীপ ঘোষ সহ তার অনুগামীরা সেখানে বিজেপি কর্মীদের ওপর চড়াও হয়, এবং অভব্য ভাষায় গালিগালাজ করে। জানা যায় এই ঘটনায় প্রাক্তন বিধায়কের গাড়ি সহ   দুটো গাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়।   খবর পেয়ে দ্রুত  পুলিশ  সেখানে গিয়ে বিজেপি কর্মীদের উদ্ধার করে নিয়ে আসে ।

প্রাক্তন তৃণমূল কাউন্সিলর জয়দীপ ঘোষ বলেন , দিনহাটার বিধায়ক উদয়ন গুহকে কালিমালিপ্ত করার জন্য এসএফআইয়ের রাজ্য কমিটির বাড়িতে বিজেপির কর্মী সমর্থক এবং এসএফআইয়ের কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে আঁতাত প্রকাশ্যে চলে আসে। যেটা আমরা কোনভাবেই স্থানীয়দের কাছ থেকে   জানতে পেরেই সেখানে যাই।  বিজেপির কোচবিহার জেলা সহ-সভাপতি প্রাক্তন বিধায়ক অশোক মন্ডল, বলেন এদিন তারা রমা দাসের বাড়িতে সৌজন্য সাক্ষাৎ করতে গিয়েছিলেন। এর সাথে রাজনীতির কোনো সম্পর্ক নেই। এদিন  সেই বাড়িতে গেলে তাদের ওপর চড়াও হয় স্থানীয় প্রাক্তন কাউন্সিলর  উদয়ন গুহ অনুগামী  জয়দীপ  ঘোষ সহ তার  সহযোগীরা।  দিনহাটার বন্ধুত্বপূর্ণ পরিবেশকে নষ্ট করার চেষ্টার খেলায় মেতে উঠেছেন কেউ কেউ বলেও তার  অভিযোগ।

বিজেপি নেতা দীপ্তিমান সেনগুপ্ত বলেন, দিনহাটা বাসি  হিসেবে আমরা তাদের  সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করতে গিয়েছিলাম কোন রাজনৈতিক উদ্দেশ্য নিয়ে নয়।  রাজনীতির  ঊর্ধ্বে আমরা ব্যক্তি মতাদর্শে বিশ্বাসী,এতেই ভয় পেয়ে গেছে  এলাকার  প্রাক্তন কাউন্সিলর জয়দীপ ঘোষ । যার ফলে আমাদের ওপর চড়াও হয়েছে।   তার পাশাপাশি তিনি এও বলেন দিনহাটায় বেশিদিন আর গুন্ডা রাজনীতি চলবে না ।  তৃণমূল ভয় পেয়ে গেছে এটাই তার প্রমান।

Related Articles

Back to top button
Close