fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

ফের সরকারি চাল চুরি, হাতেনাতে ধরলেন বিজেপি সাংসদ জগন্নাথ সরকার

অভিষেক আচার্য, কল্যাণী:  কেন্দ্র সরকারের ত্রাণ এর চাল পাচার করতে গিয়ে ধরা পড়লেন রাইসমিলের মালিক। সেই চুরি হাতেনাতে ধরে ফেললেন রানাঘাট লোকসভার বিজেপি সাংসদ জগন্নাথ সরকার। ঘটনাটি ঘটেছে, রানাঘাট থানার হবিবপুর এলাকায়। ওই মিলের ভিতরে প্রচুর পরিমাণে মজুদ করা রয়েছে সরকারি চালের বস্তা। স্থানীয়দের অভিযোগ, হবিবপুর শ্রীকৃষ্ণ রাইস মিলের মালিক কিশোর সাউ লরি ভর্তি চাল নিজের গোডাউনে ঢোকাছিলেন। সেই সময় খবর পেয়ে এলাকায় ছুটে আসেন বিজেপি সাংসদ জগন্নাথ সরকার। ঘটনাস্থলে পৌঁছান রানাঘাট ১ নম্বর ব্লকের বিডিও সঞ্জীব সরকার।

স্থানীয়রা জানান, শুক্রবার সকালে রানাঘাট থানার হবিবপুরের শ্রীকৃষ্ণ রাইস মিলের ভিতর লরি ভর্তি সরকারি বস্তা বোঝাই চাল দেখতে পান স্থানীয় মানুষজন। অভিযোগ, লকডাউনের সময় মানুষের মধ্যে বিনামূল্যে রেশন বিলি করছে সরকার,তখন সেই চাল পাচার করছে কিছু অসাধু ব্যক্তি। আর এই খবর ছড়িয়ে পড়ার পরই এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনার সৃষ্টি হয়। এ বিষয়ে জগন্নাথ সরকার বলেন, স্বচ্ছ ভারতের লোগো লাগানো রয়েছে চালের বস্তায়। সেই চাল পাচার করছিলেন রাইস মিলের এক মালিক। গরিবের ত্রাণের চাল কিভাবে চুরি হচ্ছে রাজ্য সরকার তা খতিয়ে দেখুক। আমরা তো বারবার অভিযোগ করছি রাজ্য সরকারের কাছে। কিন্তু তার ফলাফল কি হচ্ছে সেটা মানুষ দেখতেই পাচ্ছে। তিনি প্রশাসনের কাছে অভিযোগ জানাবেন বলে জানিয়েছেন।

আরও পড়ুন: পরিযায়ী শ্রমিকদের নিয়ে রাজনীতি বন্ধ করুন মমতা: রাহুল সিনহা

এ বিষয়ে রাইস মিলের মালিক কিশোর সাউ জানান, এই চাল তিনি বর্ধমান থেকে কিনেছেন। কোনো চুরি করেননি। চাল কেনার কাগজ পত্র ও রয়েছে তাঁর কাছে।ত্রাণের চাল চুরির ঘটনা এখন সর্বত্র। রাজ্য সরকার এই নিয়ে সতর্ক করেছে খাদ্যামন্ত্রককে। শুধু তাই নয়, বিরোধী দল গুলিও বারবার অভিযোগ জানিয়েছেন। তা সত্ত্বেও পাল্টায়নি চিত্র। দিনের পর দিন ঘটে চলেছে একই ঘটনা।  প্রশাসনের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, বিষয় টি তদন্ত করে দেখা হবে।

Related Articles

Back to top button
Close