fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

আমফান দুর্নীতিতে তৃণমূলের নামে বিজেপির পোস্টার, প্রতিবাদে বিক্ষোভ কর্মসূচী

শ্যাম বিশ্বাস, উওর ২৪ পরগনা: আমফানের ক্ষতিপূরণের আর্থিক সাহায্যের টাকা সর্বদলের লোকেরাই পেয়েছে। বেশকিছু দিন ধরে আমফানের দুর্নীতি অভিজোগে সরগরম রাজ্য রাজনীতি। ইতিমধ্যেই এই দুর্নীতিতে রাজনৈতিক নেতা মন্ত্রীদের নাম উঠে এসেছে। উল্লেখযোগ্য ভাবে রাজ্যের শাসকদলের নেতাদের নামই বেশি করে উঠে আসছে। বেশ কিছু জন নেতাদেরো শো-কজ করা হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও স্পষ্ট ভাবে জানিয়ে দিয়েছে দুর্নীতিতে দলের কারুর নাম উঠল তাকে রেয়াত করা হবে না। শো-কজ করা হবে। কিন্তু এই সত্যতা মানতে নারাজ তৃণমূলের একাংশ, তাদের দাবি। আমফানের ক্ষতিগ্রস্থের টাকা তৃণমূল বিজেপি সিপিএম কংগ্রেস সবাই পেয়েছে। প্রত্যেকের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ আছে ।কেন তৃণমূলের নামে কালিমালিপ্ত করা হচ্ছে এর প্রতিবাদে তৃণমূলের মিছিল।

বসিরহাট মহকুমার সুন্দরবনের হিঙ্গলগঞ্জ ব্লকের হিঙ্গলগঞ্জ পঞ্চায়েতের পশ্চিম মামুদপুর এর ঘটনা। আমফানের ক্ষতিগ্রস্ত এই গ্রামে ১৮১ জন কুড়ি হাজার টাকা করে ক্ষতিপূরণের টাকা পেয়েছে। সেখানে সব রাজনৈতিক দল। তাদের মধ্যে বেছে বেছে ৩৫ জনের তৃণমূল কর্মী সমর্থকদের নামের তালিকা বের করে পোস্টার ছাপানোর অভিযোগ বিজেপির বিরুদ্ধে। অভিযোগ অস্বীকার বিজেপির। কে বা কারা রাতের অন্ধকারে বেছে বেছে ৩৫ জন তৃণমূল কর্মী সমর্থকদের নামের লিস্টের পোস্টার কাউর বাড়ির দেয়ালে, গাছের গায়ে, বিদ্যুতের খুঁটিতে পোস্টার লাগিয়ে দিয়েছে। বাকি ১৪৬ জনের নামের তালিকা কেন লাগানো হল না এই নিয়ে ক্ষোভ উগরে দিলেন হিঙ্গলগঞ্জ আঞ্চলিক তৃণমূলের নেতা অলক মন্ডল সহ,কর্মী সর্মথকরা আজ শুক্রবার তৃণমূল নেতৃত্বের উদ্যোগে বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন মানুষ তৃণমূল কর্মী সমর্থক ও গ্রামবাসীরা প্রতিবাদে সামিল হন।

আরও পড়ুন: মালদায় লকডাউনের আবহে মানুষের ভিড় আটকাতে চলছে পুলিশি অভিযান

যেসব ক্ষতিগ্রস্তরা টাকা পেয়েছে তাদের কে নিয়ে মিছিল করে হিঙ্গলগঞ্জ পঞ্চায়েত অফিসে প্রতিবাদ ও বিক্ষোভ ও পথসভা করেন। হিঙ্গলগঞ্জ গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান তন্দ্রানী মন্ডল পশ্চিম মামুদপুর এর স্থানীয় মেম্বার ও বিনা রায় বলেন, ১৮১ জন আমফানের ক্ষতিগ্রস্তরা ক্ষতিপূরণের ২০,০০০ টাকা করে পেয়েছেন। বিজেপি এটা নোংরা রাজনীতি করছে। বাকিদের নাম বাদ দিয়ে তৃণমূল কর্মী সমর্থকদের  নাম টাঙানো হচ্ছে ।এর তদন্ত হওয়া উচিত।

তাদের দাবি সব রাজনৈতিক দল পেয়েছে কেন তৃণমূলের নামে কালিমালিপ্ত করা হচ্ছে। এর বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দেয় হিঙ্গলগঞ্জ বিজেপি নেতৃত্ব, এই অভিযোগ অস্বীকার করছে। এটা তৃণমূলের দলের থেকে  তৃণমূল কর্মী সমর্থকদের নামে পোস্টার ছাপিয়ে বিজেপির নামে দোষ দিচ্ছে, কালিমালিপ্ত করছে। এর সঙ্গে ভারতীয় জনতা পার্টি কোনভাবেই যোগ নেই।

Related Articles

Back to top button
Close