fbpx
গুরুত্বপূর্ণপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

মাওবাদী-তৃণমূল যোগ নিয়ে ঝাড়গ্রামে সরব সায়ন্তন

নিজস্ব প্রতিনিধি, ঝাড়গ্রাম: রাজ্য মাওবাদীদের সঙ্গে তৃণমূলের যোগাযোগ ক্রমেই বাড়ছে রাজ্য সরকার বিষয়টি জেনে কোন লাভ হয়নি বলেই কেন্দ্রকে জানাতে তৎপর হয়েছে রাজ্য বিজেপি সোমবার ঝাড়্গ্রাম শহরের বিজেপি পার্টি অফিসে নেতা কর্মীদের নিয়ে এক বৈঠকে যোগ দিতেএ এসে সাংবাদিক সন্মেলন করার সময় একথা বলেন রাজ্যে বিজেপির সাধারন সম্পাদক সায়ন্তন বসু। এদিন ঝাড়্গ্রাম বিজেপির পার্টি অফিসে নেতা কর্মীদের বৈঠকের পর সাংবাদিক সন্মেলন করেন তিনি।

এদিন সায়ন্তন বাবুকে আয়ুষ্মান ভারত আর কৃষক সন্মান বিধি প্রকল্প নিয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন রাজ্য সরকার যেখানে অনুমতি দেননি সেখানে অন লাইনে দরখাস্ত করলেও হবে না। আর ছয় আট মাস পরে বিজেপি ক্ষমতায় এলে এই দুটি প্রকল্প চালু করে দেওয়ার কথা বলেন। এদিন দাঁতন থানায় আগুন লাগিয়ে দেওয়া হবে একথা বলার জন্য আপনার বিরুদ্ধে মামলা করেছে পুলিশ এই প্রসঙ্গে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, আমার বিরুদ্ধে মামলা করেছে। কিন্তু সায়ন্তন বসুকে জ্বালাবে বলেছে তার বিরুদ্ধে কি মামলা দায়ের করেছে। আসলে পুলিশ দলদাস। বিজেপি করার অপরাধে পঞ্চায়েত নির্বাচন থেকে পশ্চিমবঙ্গে ১০৪ জন মানুষ খুন হয়েছে। আর আমার বিরুদ্ধে মামলা করবে। যারা খুন করল তাদের বিরুদ্ধে মামলা হল না। আর আমার বিরুদ্ধে মামলা হলে কি সমস্যার সমাধান হবে। সায়ন্তন বাসুকে জ্বালিয়ে দেবে বলেছে তার বিরুদ্ধে কোনও মামলা হল না কেন? এরপর আস্তে আস্তে মেজাজ হারাতে শুরু করেন তিনি। এরপর সাংবাদিক, সাংবাদ মাধ্যমকে আক্রমন করে বলেন পবন জানা কেন খুন সে বিষয়ে মিডিয়া আলোচনা করছে না। আমি কোথায় একটা শ্লোগান দিলাম থানা জ্বালিয়ে দেব পুড়িয়ে দেব তা আমাকে আমাকে বার বার প্রশ্ন করা হচ্ছে। মুখ্যমন্ত্রী যখন বলেছিলেন ইঞ্চিতে ইঞ্চিতে বদলা নেব তখন আপনারা চুপ ছিলেন কেন। ভারতীয় জনতা পার্টি কোন হিংসাত্বক পার্টি নয়। যদি আমাদের সাথে হিংসাত্বক আচরণ মনে হয় তাহলে ভগবান শ্রীকৃষ্ণ শিশুপালের সাথে যা করেছিল তাই করবো।

Related Articles

Back to top button
Close