fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

দলত্যাগী বাপি বাউরিকে দলে ফিরিয়ে নিল বিজেপি…তৃণমূলে গিয়ে ভুল করেছি, জানালেন সদ্য দলে ফেরা কর্মী

প্রদীপ্ত দত্ত, সিউড়ি: ডা. শ্যামাপদ মুখার্জির জন্মদিবসে সোমবার বীরভূমের চীনপাইয়ে দলীয় কার্যালয় উদ্ধোধন করেন বিজেপির জেলা সভাপতি শ্যামাপদ মন্ডল। বিজেপি থেকে তৃণমূলে চলে যাওয়া দলীয় কর্মী বাপি বাউরিকে এদিন সদলবলে আবার বিজেপিতে ফিরিয়ে নেওয়া হয়। বাপি বাউরি জানান, তিনি নিজের ভুল বুঝতে পেরে আবার নিজের ঘরে ফিরে এসেছেন।

আরও পড়ুন:মানুষের ত্রাণ চুরি হচ্ছে: তথাগত রায়

শ্যামাপদ মন্ডল তৃণমূলকে নতুন দলীয় কার্যালয় থেকে তীব্র কটাক্ষ হেনে বলেন, ” তৃণমূল দলটা সার্কাস চালায়। দশটার কোনও ঠিক ঠিকানা নেই। দলটা এখন কোমায় চলে গেছে। কোমায় চলে যাওয়া বোঝেন তো ? মানুষ যখন বাঁচার শেষ মুহূর্তে যায়, কথা বলতে পারে না , শ্বাসপ্রশ্বাস কেবল চলে , খেতে পারে না, কোনও শক্তি থাকে না , তখন ডাক্তারবাবুরা কিছু টাকা পয়সা আদায় করার জন্য কোমায় ভরে দেয়। কথাই বলে না আর কিছুই নেই শুধু জীবনটুকু যায়নি। ঠিক সেরকম বীরভূমের তৃণমূল এখন কোমায় চলে গেছে ।”

সেইসঙ্গে প্রশান্ত কিশোরের প্রসঙ্গ তুলে বলেন ,” এই কোমায় চলে যাওয়া তৃণমূলকে বাঁচাবে নাকি প্রশান্ত কিশোর। আগে সাধু সন্ন্যাসীরা , বামাক্ষ্যাপা , রামকষ্ণদেব কুন্ডলীর জল দিয়ে দিত আর বেঁচে যেত । আর এখন নাকি প্রশান্ত কিশোর এসে মরা তৃণমূলকে বাঁচাবে ! তা বাঁচাতে পারলে ভালো ।”

আরও পড়ুন:এইমস ট্রমা সেন্টারের চতুর্থ তলা থেকে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা দৈনিক ভাস্কর পত্রিকার প্রাক্তন সাংবাদিকের

বীরভূমে তৃণমূলের জনসমর্থন দ্রুত কমছে। গত লোকসভা ভোটেই কোনও সংগঠন ছাড়াই বিজেপি অধিকাংশ বিধানসভায় এগিয়ে ছিল। নানা দুর্নীতির ঘটনায় তৃণমূল এখন জেলায় অনেকটাই ব্যাকফুটে। অনুব্রত মন্ডলের গলাতেও সেই আগের মতো চড়াম চড়াম শব্দ নেই। ২১ এর ভোটে জেলায় তৃণমূলের বর্তমান অবস্থা বোঝাতেই শ্যামপদ মন্ডল তৃণমূলের বিরুদ্ধে তীব্র ভাষায় এই আক্রমণ করেন।

Related Articles

Back to top button
Close