fbpx
কলকাতাহেডলাইন

বাঙালিয়ানায় ভর করে কলকাতা উত্তরে সদস্য সংগ্রহ অভিযানে বিজেপি, টার্গেট ৭০ হাজার

শরণানন্দ দাস, কলকাতা: উনিশের লোকসভা নির্বাচনে অভূতপূর্ব সাফল্য পেয়েছিল বিজেপি। রাজ্যে ১৮ টি আসন পেয়েছিল গেরুয়া শিবির। কিন্তু কলকাতা (উত্তর) ও (দক্ষিণ) আসন দুটি হেরে যায় বিজেপি। কলকাতা ( উত্তর) কেন্দ্রে প্রার্থী ছিলেন বিজেপির কেন্দ্রীয় সম্পাদক রাহুল সিনহা। স্বাভাবিক ভাবেই একুশে কলকাতা পুনরুদ্ধারে  মরিয়া বিজেপি। কলকাতা উত্তর ও দক্ষিণের জেলা সভাপতি বদল হয়েছে সম্প্রতি। কলকাতা (উত্তর) নতুন সভাপতি শিবাজী সিংহ রায়। মঙ্গলবার তিনি জানালেন ‘ আমার পরিবার বিজেপি পরিবার” নয়া সদস্য সংগ্রহ অভিযানে  টার্গেট ৭০ হাজার।

দীর্ঘ দিনের কংগ্রেস কর্মী হিসেবে উত্তর কলকাতাকে হাতের তালুর মতোন চেনেন। এদিন প্রত্যয়ের সঙ্গে তিনি বলেন, ‘ কর্পোরেশনে  ৬০ টি আসনের মধ্যে ৩৫ থেকে ৪০ টা আসন, কলকাতা ( উত্তর) লোকসভার মধ্যে ৭ টি বিধানসভা আসনই আমরা জিতবো।’

এতোটা আত্মবিশ্বাসী হচ্ছেন কী করে? পোড়খাওয়া নেতা বলেন, ‘ এই এলাকাটা খুব ভালো করে চিনি। এখানকার ভোটারদের আবেগের জায়গা হল বাঙালিয়ানা। আমরা সেই আবেগটাকেই ধরতে চাই। স্বামী বিবেকানন্দ জন্মেছেন উত্তর কলকাতায়, শ্রীরামকৃষ্ণ এসেছেন উত্তর কলকাতার বহু স্থানে। আমরা বাঙালির সেই আবেগটাকে ধরতে চাই। মা দুর্গা, মা কালি, লক্ষ্মী বাঙালির প্রাণের দেবতা। তাই দুর্গাপুজো, লক্ষ্মীপুজো, কালিপুজোয় এলাকার মানুষের আনন্দে শামিল হবো। সোজা কথা জনসংযোগ বাড়াতে হবে। এলাকার মানুষের আপদে বিপদে পাশে আছি এই ভরসার জায়গাটা তৈরি করাই বড়ো চ্যালেঞ্জ।’

আরও পড়ুন: ‘‌শূন্য শিক্ষাবর্ষ’‌ ঘোষণার কোনও সম্ভাবনাই নেই, স্পষ্ট জানিয়ে দিল কেন্দ্রীয় শিক্ষা মন্ত্রক

উনিশে হারের কারণ ব্যাখ্যায় শিবাজী সিংহ রায় বলেন, ‘ সংগঠনে পরিকাঠামোগত কিছু দুর্বলতা ছিল। সেই জায়গাগুলো বের করেছি, সংশোধনও হচ্ছে। আরও বেশি করে মানুষের কাছে যাচ্ছি। দলের কর্মীদের বলেছি জন্ম থেকে শ্রাদ্ধ সব সময়ে এলাকার মানুষের পাশে থাকতে হবে। ইতিমধ্যেই আমরা বাগমারি অঞ্চলে সদস্য সংগ্রহ অভিযানে বেরিয়ে প্রচুর সাড়া পাচ্ছি। আমি আশাবাদী একুশে কলকাতা ( উত্তর) থেকে বিজেপি যথেষ্ট সংখ্যায় আসন পাবে।’

 

Related Articles

Back to top button
Close