fbpx
কলকাতাগুরুত্বপূর্ণপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

২১’র লক্ষ্যে অনুপমের নেতৃত্বে বুদ্ধিজীবীদের একজোট করার ভাবনা বিজেপির

শরণানন্দ দাস, কলকাতা: একুশের লড়াইয়ে রাজ্যের বুদ্ধিজীবীদের পাশে চাইছেন গেরুয়া শিবির। অভিঞ্জতায় তাঁরা দেখেছেন বিশেষ করে শহরাঞ্চলে অভিজাত, বুদ্ধিজীবী মহল জনমতে একটা প্রভাব ফেলেন। এবার তাই সমাজের এই এলিট অংশকে পাশে পেতে মরিয়া বিজেপি। দলের শীর্ষ নেতৃত্ব এই দায়িত্ব দিল কেন্দ্রীয় সম্পাদক তথা বোলপুরের প্রাক্তন সাংসদ, অধ্যাপক অনুপম হাজরাকে।
প্রসঙ্গত অমিত শাহ এবার ঝটিকা সফরে শহরে এসে দেখা করতে যান বিশিষ্ট শাস্ত্রীয় সংগীত শিল্পী পণ্ডিত অজয় চক্রবর্তীর সঙ্গে। পণ্ডিত অজয় চক্রবর্তী যতই বলুন সৌজন্য সাক্ষাৎ, রাজনীতিক মহল এই সাক্ষাতে অন্য অঙ্ক দেখছে। আর তা যে খুব একটা ভুল নয় তা এখন স্পষ্ট।
অমিত শাহ’র  বাংলা সফরের পরই বুদ্ধিজীবীদের একত্রিত করার ভাবনা নিয়ে মাঠে নামে বিজেপি। অনুপম জানিয়েছেন, অমিত শাহের উপস্থিতিতে দলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক (সংগঠন) বি এল সন্তোষের সঙ্গে তাঁর কথা হয়েছে। তাঁর কথায়’, ‘সমাজের বিশিষ্ঠজনদের নিয়ে অরাজনৈতিকভাবে রাজনৈতিক সচেতনতা প্রচার করতে হবে। হাতে পতাকা ধরিয়ে দিয়ে সমাজের বুদ্ধিজীবী সম্প্রদায়কে দলে নিয়ে আসতে আমি চাই না। একটু অন্য আঙ্গিকে তাঁদেরকে আমাদের পক্ষে আনতে হবে। । গ্রামে গঞ্জে মোদিজির নেতৃত্বে কেন্দ্রীয় সরকারের যে সাফল্য তার প্রচার সেভাবে হয় না। সেটা করতে হবে শিল্পীদের মাধ্যমে। অরাজনৈতিক মঞ্চের মাধ্যমে বুদ্ধিজীবীদের একত্রিত করে কেন্দ্রীয় সরকারের জনহিতকর কাজ নিয়ে সেমিনার কিংবা বিতর্কের আয়োজন করতে হবে। সরাসরি বিজেপির হয়ে মাঠে নেমে স্লোগান নয়, নতুন আঙ্গিক এটাই হবে’।

Related Articles

Back to top button
Close