fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

বিজেপি কর্মীর বাড়িতে বোমাবাজি, এলাকায় উওেজনা

নিজস্ব প্রতিনিধি, পটাশপুর (পূর্ব মেদিনীপুর): পটাশপুরে দিনের পর দিন বিজেপি কর্মীদের সংখ্য বাড়ছে। রাতের অন্ধকারে বোমার বিকট শব্দে কেঁপে উঠলো পটাশপুরে বিভিন্ন এলাকা। এক বিজেপি কর্মীর বাড়িতে বোমাবাজি, ভাঙচুর, প্রাণঘাতী হামলা ও লুটপাটের অভিযোগ এলাকায় দাপুটে তৃণমূল নেতা তার দলবলের বিরুদ্ধে। যদিও পুরোপুরি অভিযোগ অস্বীকার করেছে শাসকদল। এই ঘটনার পরেই গোটা এলাকায় ব্যাপক উওেজনা ছড়িয়ে পড়ে। ঘটনাটি ঘটছে পূর্ব মেদিনীপুর জেলার পটাশপুর থানার কাটরঙ্কা গ্রামে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূএে জানা গিয়েছে, পটাশপুরে কাটরঙ্কা গ্রামের শুভেন্দু মহাপাএ বিজেপি সক্রিয় কর্মী ছিলেন। সোমবার গভীর রাতে তৃণমুল আশ্রিত গুণ্ডাবাহিনী বিজেপি কর্মী শুভেন্দুর বাড়িতে একের পর এক বোমাবাজি করে শাসক দলের নেতা কর্মীরা বলে অভিযোগ। শুধু তাই নয় বাড়ির দরজা ভেঙে পরিবারের সদস্যদের মারধর, লুঠপাট চালায় শাসকদলের নেতা সহ তার গুণ্ডাবাহিনীরা। প্রতিবেশীরা একজোট হয়ে শুভেন্দু বাড়িতে ছুটে আসে। বিজেপি কর্মী শুভেন্দু মহাপাএের বলেন, এলাকায় বিজেপি করার অভিযোগে তৃ্ণমুল নেতা তাপস মাঝি, গ্রাম পঞ্চায়েত সদস্য দীপক মহাপাএ সহ তার দলবল নিয়ে এসে বাড়িতে বোমাবাজি করে।বাড়ির দরজা ভেঙে আলমারি থেকে টাকা, সোনার গহনা সহ লুটপাট করে নিয়ে পালায়। এই ঘটনার পটাশপুর থানার পুলিশকে বিষয়টি জানিয়েছি।

কাঁথি সাংগঠনিক জেলার বিজেপি সভাপতি অনুপ চক্রবর্তী বলেন, ভারতীয় জনতা পাটি কার্ষকর্তাদের বেছে তৃণমূল হার্মাদ বাহিনীরা হামলা চালাচ্ছে। তাদের সহযোগিতার করছে প্রশাসনের উর্দি পড়ে কিছু চোরচোট্টা। তাদের প্রতি ঘৃণা ও ধিক্কার জানাই।

এই সমন্ত অভিযোগ উড়িয়ে দিয়ে ব্লক সভাপতি তাপস মাঝি বলেন, এই ঘটনার সঙ্গে কোন ভাবেই যুক্ত নয়। তাদের দলের কোন কর্মীও জড়িত নয়।

তাপসবাবু আরও বলেন, শুভেন্দু তাদের দলের কর্মী ছিলেন। রাজনীতি সুযোগ নিতে বিজেপিতে যোগদান করেছে। পটাশপুর থানার ওসি চন্দ্রকান্ত শ্যাসমল বলেন, এই ঘটনার থানার এখনও পর্ষন্ত কোনও লিখিত অভিযোগ দায়ের হয়নি৷ অভিযোগ পেলে পুরো ঘটনাটি তদন্ত করে দেখা হবে।

Related Articles

Back to top button
Close