fbpx
গুরুত্বপূর্ণপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

উধাও অনেক সিসিটিভি ফুটেজ, বিজেপি নেতা মণীশ শুক্লার খুনে উঠছে একাধিক প্রশ্ন

ধৃমল দত্ত, ব্যারাকপুর: রবিবার ভর সন্ধ্যায় টিটাগর থানা থেকে ঢিলছোড়া দূরত্বে খুন হয়েছেন বিজেপির যুবনেতা মনিষ শুক্লা। সোমবার সকাল থেকে ব্যারাকপুর সাংগঠনিক জেলায় শুরু হয়েছে বনধ। কল্যাণী এক্সপ্রেসওয়ে এর ওপর টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ দেখাচ্ছে বিজেপির কর্মীরা। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে ব্যারাকপুর পুলিশ কমিশনারেট কিন্তু তদন্ত শুরু হতেই উঠে আসছে একাধিক প্রশ্ন। সোমবার সকাল থেকেই ঘটনাস্থলে পুলিশ বাহিনী প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে যথেষ্ট পরিকল্পনা করে খুন করা হয়েছে ব্যারাকপুর সাংগঠনিক জেলার বিজেপি নেতা মনিষ শুক্লাকে।

যে বাইকে করে দুষ্কৃতীরা এসেছিল সেই বাইক দুটি চিহ্নিত করার কাজ শুরু করেছে ব্যারাকপুর পুলিশ কমিশনার। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন দুটি বাইকে করে চার পাঁচ জন দুষ্কৃতী এসেছিল। প্রাথমিক তদন্তে মনে হচ্ছে ভাড়াটে খুনি দিয়ে এই কাজ করানো হয়েছে।  এই তদন্তে পুলিশের অন্যতম অস্ত্র সিসিটিভি ফুটেজ সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখলেই তবে কোন দিক দিয়ে দুষ্কৃতী এসেছিল ও কোন দিক দিয়ে তারা চলে গিয়েছে সেটা বোঝা যাবে। এমনিতেই বিটি রোডের উপর অনেক সিসিটিভি রয়েছে সেগুলি ফুটেজ খতিয়ে দেখা হচ্ছে কিন্তু ঘটনাস্থলের কাছ থেকে অনেকগুলো সিসিটিভি উধাও বলে জানা গিয়েছে ।

আরও পড়ুন: বিজেপি নেতা খুনের ঘটনায় আজ বারাসত বনধ…ঘটনাস্থল পরিদর্শনে ব্যারাকপুর পুলিশ কমিশনার মনোজ ভার্মা

যেখানে বিজেপির নেতা মনিষ শুক্লাকে খুন করা হয়েছে তার সবথেকে কাছে একটি ঔষধের দোকানের মাথায় গতকাল রাতে একটি সিসিটিভি ফুটেজ ছিল বলে অভিযোগ বিজেপি কর্মীদের। কিন্তু আজ সকাল থেকেই সেটি দেখা যাচ্ছে না এছাড়া ওই এলাকায় সিসিটিভি উধাও বলে অভিযোগ বিজেপি। জানা গিয়েছে বিজেপির নেতা মনিষ শুক্লার দুজন ব্যক্তিগত দেহরক্ষী ছিল কিন্তু সম্প্রতি তারা দুজনেই ছুটি নিয়েছিল এই খবর। আর দুষ্কৃতীদের কাছে ছিল বলে অভিযোগ বিজেপির। এভাবে দেহরক্ষীদের ছুটি নেওয়া ওই এলাকার একাধিক সিসিটিভি উধাও হয়ে যাওয়ার পিছনে বড় ষড়যন্ত্র আশঙ্কা করছে পুলিশ।

 

সূত্রের খবর, দোকানের উপর থেকে সিসিটিভি খুলে নেওয়ার অভিযোগ উঠছে সেই দোকানের মালিক জানিয়েছেন, তার সিসিটিভি খারাপ হয়ে গিয়েছিল তাই খুলে নেওয়া হয়েছে। ওই এলাকায় আরও সিসিটিভি বিকল হয়ে গিয়েছে বলে অভিযোগ। সব মিলিয়ে দানা বেঁধেছে রহস্য। প্রাথমিকভাবে পুলিশ জানতে পেরেছে বারাকপুরের দিক থেকে এসে ডানলপের দিকে পালিয়ে গেছে দুষ্কৃতীরা। বিটি রোডের উপর যে ট্রাফিক পুলিশের সিসিটিভি ক্যামেরা রয়েছে সেখান থেকে বাইক চিহ্নিত করার কাজ শুরু হয়েছে তবে এখনো কাউকে আটক করা হয়নি বলে সূত্রের খবর।

Related Articles

Back to top button
Close