fbpx
গুরুত্বপূর্ণপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

বিজেপির গণতন্ত্র বাঁচাও ধরনা কর্মসূচী : জনজোয়ারে ভাসলো নদীয়া

শ্যামল কান্তি বিশ্বাস, নদীয়া: গণতন্ত্র রক্ষা সহ রাজ্যের শাসক দলের বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ এনে রাজ্য নেতৃত্বের পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী আজ নদীয়া জেলার কল্যাণী, রানাঘাট, কৃষ্ণনগর ও তেহট্ট মহকুমায়,মহকুমা শাসকদের কার্যালয়ে বিজেপির পক্ষ থেকে আঞ্চলিক নেতৃত্বের উপস্থিতিতে পৃথক পৃথক কর্মসূচীতে সামিল দলের কর্মী সমর্থকেরা।

মহকুমা শাসকের কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ অবস্থান সহ মহকুমা শাসকের কার্যালয়ে স্মারকলিপি প্রদান করে বিজেপি নেতৃত্ব। বিজেপি কর্মী সমর্থক সহ সাধারণ মানুষের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণ ছিল চোখে পড়ার মতো। কল্যাণী, রানাঘাট, কৃষ্ণনগর ও তেহট্ট মহকুমায়,কর্মসূচি রূপায়নে এলাকাগত ভাবে নেতৃত্বে ছিলেন, সাংসদ জগন্নাথ সরকার, বিধায়ক আশীষ কুমার বিশ্বাস, জেলার দক্ষিনের সাংগঠনিক সভাপতি অশোক চক্রবর্তী, জেলার উত্তরের সাংগঠনিক সভাপতি আশুতোষ পাল, বিজেপির কৃষাণ মোর্চার রাজ্য সভাপতি মহাদেব সরকার প্রমুখ। ভারতবর্ষ,বিশ্বের বৃহত্তম গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র হওয়া সত্বেও,রাষ্ট্রের অন্যতম রাজ্য পশ্চিমবঙ্গে আজ গণতন্ত্র বিপন্ন। রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস, দেশের ঐতিহ্যকে কলুষিত করেছে।

      আরও পড়ুন: JEE-NEET: পরীক্ষা নিয়ে ৬ রাজ্যের আবেদন নিয়ে আজ শুনানি শীর্ষ আদালতে

রাজ্যের শাসক দলের অপশাসনে, বিশ্বের দরবারে মাথা হেঁট হচ্ছে পশ্চিমবঙ্গবাসীর এবং এই অপশাসনের দ্রুত অবসান কল্পে রাজ্যে গনতন্ত্রের পূনঃ প্রতিষ্ঠা সহ রাজ্যের মানুষের ন্যায় বিচারের দাবিতে এই বিক্ষোভ অবস্থান কর্মসূচি বলে জানালেন সাংসদ জগন্নাথ সরকার। কাতারে কাতারে জেলার জনগণের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণে স্বভাবতই খুশি বিজেপি নেতৃত্ব। শাসক তৃণমূল সহ সিপিএম ও কংগ্রেস দল থেকে বহু কর্মী সমর্থক আজ বিজেপিতে যোগদান করেন বলে জানিয়েছেন বিধায়ক আশীষ কুমার বিশ্বাস।

Related Articles

Back to top button
Close