fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

করোনা আবহে রক্তদান শিবির তারকেশ্বরে

পার্থ সামন্ত, তারকেশ্বর: করোনা ভাইরাসের প্রকোপে রক্তদান শিবির বাতিল করছেন অনেক উদ্যোক্তা। কিছু কিছু রক্তদান শিবির হলেও রক্তদাতাদের সংখ্যা খুব কম। ব্লাড ব্যাংক গুলিতে তৈরি হয়েছে রক্ত সংকট। রক্ত সংকট মেটাতে রাজ্য পুলিসকে রক্তদান শিবিরের আয়োজন করতে বলেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মুখ্যমন্ত্রীর আবেদনে সাড়া দিয়ে বিভিন্ন থানার পুলিশরা রক্তদান শিবির করে চলেছেন।

 

করোনার আবহে স্বাস্থ্য বিধি মেনেই স্বেচ্ছায় রক্তদান শিবির হলো আজ হুগলী জেলার তারকেশ্বরে। শিবিরের আয়োজক তারকেশ্বর ব্লক তৃণমূল কংগ্রেস ও তারকেশ্বর ব্লক ও টাউন মহিলা তৃণমূল কংগ্রেস। রক্তদান শিবির অনুষ্ঠিত হয় তারকেশ্বর পদ্মপুকুর সংলগ্ন কৃষ্ণ তুলসী ভবনে।

 

মুখে  মাস্ক পরে সোশ্যাল ডিস্টেন্স মেনে লাইনে দাঁড়িয়ে ছিলেন আগ্রহী রক্তদাতারা। একে একে ঘরে ঢুকে রক্ত দিলেন প্রত্যেকে। ঘরের মধ্যে রক্তদাতাদের জন্য সোশ্যাল ডিস্টেন্স মেনে দূরে দূরে বেড পাতা হয়েছে। করোনা আতঙ্কের মাঝেও এই ছবি এক উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত বলে মনে করেন স্থানীয়রা। তৃনমূল কংগ্রেসের এই উদ্যোগে আপ্লুত স্থানীয় মানুষ জন। রক্তদান শিবির উপলক্ষে উপস্থিত ছিলেন হুগলী জেলা মহিলা তৃনমূল কংগ্রেস সভানেত্রী করবী মান্না। এছাড়া ছিলেন হুগলী জেলা তৃনমূল কংগ্রেস সহ সভাপতি স্বপন সামন্ত। ছিলেন তারকেশ্বর ব্লক তৃনমূল কংগ্রেস সভাপতি অশোক কুমার হাজরা। ছিলেন হুগলী জেলা মহিলা তৃনমূল কংগ্রেস কার্যকরী সভানেত্রী সুমনা ঘোষ। এছাড়া ছিলেন তারকেশ্বর ব্লক মহিলা তৃনমূল কংগ্রেস সভানেত্রী বন্দনা মাইতি। অন্যান্য শাখা সংগঠনের নেতা নেত্রী বৃন্দ।

 

রক্তদান শিবির উপলক্ষে বন্দনা মাইতি বলেন করোনা পরিস্থিতিতে দেশ জুড়ে রক্ত সংকট দেখা দিয়েছে। ব্লাড ব্যাঙ্ক গুলোতে রক্ত পাওয়া যাচ্ছে না। তিনি বলেন দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যাযের অনুপ্রেরণায় আমরা এই রক্তদান শিবিরের আয়োজন করেছি। বন্দনা দেবী বলেন ব্লক তৃনমূল কংগ্রেস ও দলের অন্যান্য শাখা সংগঠন সবাই মিলে একযোগে এই শিবির করেছি। তিনি বলেন আজ ৪৬ জন মহিলা ও ১০২ জন পুরুষ মিলে মোট ১৪৮ জন রক্ত দিয়েছেন। তিনি প্রত্যেক রক্তদাতাকে ধন্যবাদ জানান। বন্দনা দেবী জানান সকলে মিলে ভবিষ্যতে এই রকম আরও রক্তদান শিবির করার ইচ্ছা আছে।

Related Articles

Back to top button
Close