fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

সপরিবারে রক্তদান করে বাবার মৃত্যুবার্ষিকী পালন শিক্ষক পুত্রের

দিব্যেন্দু রায়,কাটোয়া: সপরিবারে রক্তদান করে স্বর্গীয় পিতার মৃত্যুবার্ষিকী  পালন  করলেন শিক্ষক পুত্র। শুধু রক্তদানই নয় এলাকার  ৩০ জন দরিদ্র মেধাবী পড়ুয়ার হাতে পড়াশোনার সামগ্রী তুলে দেওয়ার পাশাপাশি ৩০ জন দুঃস্থর হাতে  একটা করে  কম্বলও তুলে দেন তিনি। কাটোয়া শহরের কাছারি রোডের বাসিন্দা কৌশিক দে নামে ওই শিক্ষকের এহেন  মানসিকতার তারিফ করেছেন এলাকার বাসিন্দারা।

কাটোয়া শহরের কাছারি রোডের বাসিন্দা পেশায় স্কুলশিক্ষক কৌশিকবাবুর বাবা দেবনারায়ন দে প্রাথমিক স্কুলে শিক্ষকতা করতেন। বছর ১৪ আগে তিনি মারা যান। বৃহস্পতিবার ছিল কৌশিকবাবুর বাবার বাৎসরিক অনুষ্ঠান।

[আরও পড়ুন- বিজেপির সদস্যতা অভিযান কর্মসূচিতে ব্যাপক সাড়া নদিয়া জুড়ে]

কৌশিকবাবু বলেন, “লকডাউন পরিস্থিতির কারনে সেভাবে রক্তদান শিবির হচ্ছে না। সেইকারনে কাটোয়া হাসপাতালের ব্লাডব্যাঙ্কে রক্তের খুব আকাল চলছে বলে শুনেছি। তাই সিদ্ধান্ত নিয়েছি বাবার বাৎসরিক অনুষ্ঠানে বাড়ির সবাই মিলে রক্তদান করব।”

জানা গেছে, কৌশিকবাবুর বাড়িতে রয়েছেন বিধবা মা, স্ত্রী ও এক ছেলে। এদিন তাঁরা কাটোয়া হাসপাতালের হেমরাজ ব্লাড ব্যাঙ্কে এসে রক্তদান করে যান। তাঁদের পাশাপাশি কৌশিকবাবুর শ্যালকসহ আরও  ৫ জন আত্মীয়ও  ব্লাডব্যঙ্কে এসে রক্তদান করে যান। এদিন শুধু রক্তদানই নয় কৌশিকবাবুর তরফ থেকে এলাকার ৩০ জন দরিদ্র  মেধাবী পড়ুয়ার হাতে বই, খাতা, পেন ও কিছু অর্থ উপহার স্বরূপ তুলে দেওয়া হয়।  এছাড়া ৩০ জন দুঃস্থর হাতে একটি করে কম্বল তুলে দেন  কৌশিকবাবু। কৌশিকবাবুর কথায়, “বাবার মৃত্যুবার্ষিকী পালন করতে তো অনেক খরচ হয়ে যেত। তার পরিবর্তে ওই টাকায় দুঃস্থদের জন্য নুন্যতম কিছু করতে পেরে নিজেকে ধন্য মনে করছি।”

 

Related Articles

Back to top button
Close